ওপেকের ব্যর্থ বৈঠকের পর আরো কমলো তেলের দাম

কাতারে তেল উৎপাদনকারী দেশগুলোর জোট ওপেকের এক বৈঠকে তেলের উৎপাদন কমানোর ব্যাপারে কোনো ঐকমত্যে পৌঁছানো যায়নি। ফলে আপাতত বিশ্ব বাজারে তেলের সরবরাহ আর কমছে না।

 

ওপেকের বৈঠকে তেল উৎপাদন হ্রাস করার ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত না হওয়ায় সোমবার দিনের শুরুতেই এশিয়ার বাজারে তেলের দাম ৫ শতাংশের বেশি কমে গেছে।

 

সোমবার সকালে হংকং ও সিঙ্গাপুরে অশোধিত জ্বালানি তেলের দাম ৫ শতাংশের বেশি কমে প্রতি ব্যারেলের দাম ৩৮.৫২ ডলারে নেমে আসে। ওপেকের বৈঠকে অংশ নেয়নি ইরান এবং তারা তেলের উৎপাদন আরো বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে। গত জানুয়ারি জ্বালানি তেলের দাম গত ১২ বছরের মধ্যে সর্বনিম্নে পৌঁছায় যখন এর দাম ছিল প্রতি ব্যারেল ৩০ ডলারেরও নীচে।

 

পরে অবশ্য দাম কিছুটা বেড়ে ৪০ ডলারে পৌঁছায়। এর কারণ ছিল দোহায় অনুষ্ঠিত বৈঠকে তেলের উৎপাদন কমানোর সিদ্ধান্ত হতে পারে বলে আশা করা হয়েছিল।

 

তবে রবিবার দোহায় অনুষ্ঠিত বৈঠকে ওপেকের ১৮ সদস্য তীব্র বাদানুবাদ করলেও উৎপাদন হ্রাস বা সীমিত রাখার ব্যাপারে মতৈক্যে পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়।

 

সূত্র: এপি, এএফপি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।