শক্তিশালী ভূমিকম্পে বিধ্বস্ত ইরাক-ইরান সীমান্তের বিস্তীর্ণ এলাকা ।। মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২০৭

৭.২ মাত্রার ভূমিকম্পে বিধ্বস্ত ইরাক-ইরান সীমান্তের বিস্তীর্ণ এলাকা। এতে শুধু ইরানেই এখনও পর্যন্ত ২০৭ জনের দেহ উদ্ধার হয়েছে, আহত কম করে ১৭০০।

ইরানি টেলিভিশনের খবর, ইরাকের আধিকারিকরা ৬ জনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছেন, আহত হয়েছেন ২০০ জন। যদিও ইরাক সরকার এখনও এ ব্যাপারে কিছু বলেনি।

ইউএস জিওলজিক্যাল সার্ভে জানাচ্ছে, পূর্ব ইরাকের হালাবজা শহর থেকে ৩১ কিলোমিটার দূরে এই ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল। তবে এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী ক্ষয়ক্ষতি অনেক বেশি হয়েছে ইরানের দিকে। কম্পনের জেরে পশ্চিম ইরানের মেহরান ও ইলম শহরে বিদ্যুৎ সংযোগ চলে গিয়েছে, বিপন্নদের সাহায্যে পাঠানো হয়েছে ৩৫টি উদ্ধারকারী দল।

ইরানের সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, কম্পনে দেশের অন্তত ১৪টি প্রদেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিশেষত কারমানশাহ ও ঘসর এ শিরিনের পরিস্থিতি রীতিমত উদ্বেগজনক। এই দুই শহরের বাসিন্দারা বাড়িঘর ছেড়ে পালাচ্ছেন।

ইরান অত্যন্ত ভূমিকম্পপ্রবণ এলাকা, প্রায় প্রতিদিন কম্পন অনুভূত হয় এখানে। ২০০৩ সালে ৬.৬ মাত্রার কম্পনে ঐতিহাসিক শহর বাম মাটিতে মিশে যায়, প্রাণহানি হয় ২৬,০০০ মানুষের।