আসছে ‘ওয়াই ফাইয়ের’ চেয়ে দ্রুত গতির ‘লাই ফাই’

৩ জিবির একটি সিনেমা লাই-ফাই ব্যবহার করে ডাউনলোড করতে সময় লাগবে মাত্র কয়েক সেকেন্ড। শুধু তাই নয়, লাই ফাইয়ের মাধ্যমে ৩/৪ জিবি গেম ডাউনলোড হয়ে যাবে নিমেষেই। প্রযুক্তির উদ্ভবকরা এই কথা জানিয়েছেন।

 

বড় ফাইল ডাউনলোড করতে আমরা ওয়াই ফাই কানেকশন ব্যবহার করি। কিন্তু এতে সময় লাগে একটু বেশি। তাই অনলাইনে ফাইল ডাউনলোডে বিজ্ঞানীরা আনলেন নতুন এক প্রযুক্তি, যার নাম লাইট ফিডেলিটি বা ‘লাই ফাই’।

 

লাই ফাই ইন্টারনেট বিষয়ক একটি অত্যাধুনিক প্রযুক্তি, যা আলোর মাধ্যমে ডাটা বা উপাত্ত সঞ্চারে সক্ষম। এই নয়া প্রযুক্তির মাধ্যমে প্রচুর উপাত্ত খুব তাড়াতাড়ি ডাউনলোড হয়ে যায়।

 

জার্মান প্রকৃতিবিজ্ঞানী হ্যারেল্ড হাস প্রথম এই প্রযুক্তির কথা চিন্তা করেন। তিনিই প্রথম একটি লাইট বাল্বকে ওয়্যারলেস রাউটার হিসেবে কাজে লাগানোর কথা ভাবেন। এরপর এ নিয়ে শুরু হয় গবেষণা এবং তাতে মেলে সফলতা।

 

গবেষণাগারে এই প্রযুক্তির পরীক্ষা চালানোর সময় দেখা যায়, লাই ফাইয়ে সেকেন্ডে ২২৪ গিগাবাইট স্পিড পাওয়া যায়। বাসায় বা অফিসে এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে অনেক দ্রুত ফাইল ডাউনলোডের কাজটি সেরে ফেলা সম্ভব হবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

 

সূত্র: জি-নিউজ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।