দেশের অগ্রগতির জন্য সংবাদপত্রকে অবশ্যই টিকে থাকতে হবে : বিচারপতি নিজামুল হক

নবম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ডের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. নিজামুল হক বলেছেন, সংবাদপত্রকে টিকে থাকতে হলে মানুষের বিশ্বাস ও আস্থা অর্জন করতে হবে। তাদেরকে সঠিক, বস্তুনিষ্ঠ ও মানসম্পন্ন সংবাদ পরিবেশন করতে হবে। দেশের অগ্রগতির জন্য সংবাদপত্রকে অবশ্যই টিকে থাকতে হবে। অনলাইন ও টেলিভিশনের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করেই সংবাদপত্র টিকে আছে। তাই পাঠকদের ধরে রাখতে হলে কিছু সৃজনশীল কাজও করতে হবে। মালিক, শ্রমিক, কর্মচারী ও সাংবাদিকের ঐক্য থাকলে সংবাদপত্র শিল্প আরো এগিয়ে যাবে, সমৃদ্ধ হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

 

ঝালকাঠি প্রেসক্লাব মিলনায়তনে আজ মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় পত্রিকা সম্পাদক ও সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ঝালকাঠি প্রেস ক্লাব এ সভার আয়োজন করে। তিনি আরো বলেন, আমরা সংবাদপত্রের মালিক, শ্রমিক ও সাংবাদিকদের কথা শুনেছি। তাদের চাওয়া পাওয়ার সমন্বয়ের মাধ্যমেই নবম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ড বাস্তবায়ন করা হবে। আমরা সকল নিয়মকানুন মেনেই সরকারের কাছে রিপোর্ট দিবো। সংবাদপত্র মালিকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনাদের সংবাদপত্রে যারা কাজ করছে, যাদের পরিশ্রমের কারণে আপনারা আজ সমাজের উচ্চ স্থানে পৌঁছেছেন; আপনারা দয়া করে তাদের প্রতি লক্ষ্য রাখবেন। তাদের ন্যয্য পাওয়া দিয়ে দিবেন। সাংবাদিকদের মধ্যে ঐক্য থাকলে অবশ্যই মালিক পক্ষ সকল দাবি মানতে বাধ্য হবে।

 

সংবাদিকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, সাংবাদিকদের ব্লাকমেইলিং, অন্যায় ও চাঁদাবাজী থেকে দূরে থাকতে হবে। আপনাদের সম্মান রক্ষার্থে এগুলো বন্ধ করতে হবে। যাতে আপনাদের নিয়ে কেউ কোন প্রশ্ন করতে পারবে না। তাহলেই সকল প্রতিবন্ধকতা কেটে যাবে। মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন নবম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ডের সচিব ও তথ্য মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব (প্রেস) মো. মিজান-উল-আলম, ঝালকাঠির ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল ইসলাম, ঝালকাঠির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জাহাঙ্গীর আলম, মজুরি বোর্ডের সদস্য ও বাংলাদেশ সংবাদপত্র কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি মতিউর রহমান, মহাসচিব খায়রুল ইসলাম, বাংলাদেশ ফেডারেল ইউনিয়ন অব নিউজপেপার প্রেস ওয়ার্কার্স সভাপতি মো. আলমগীর হোসেন খান, মহাসচিব কামাল উদ্দিন, ঝালকাঠি জেলা তথ্য কর্মকর্তা মো. রিয়াদুল ইসলাম। ঝালকাঠি প্রেস ক্লাব সভাপতি কাজী খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন প্রেস ক্লাব সাধারণ সম্পাদক মানিক রায়, স্থানীয় দৈনিক শতকন্ঠ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন মন্জু, সূর্যালোক নিউজ সম্পাদক হেমায়েত উদ্দিন হিমু, সাংবাদিক শ্যামল সরকার প্রমুখ বক্তৃতা করেন। অনুষ্ঠান উপস্থাপনায় ছিলেন প্রেস ক্লাবের সহসাধারণ সম্পাদক কে এম সবুজ। সভায় বাংলাদেশের সংবাদপত্র, সাংবাদিকতা এবং মজুরি বোর্ডের কার্যক্রম বিষয়ে মুক্ত আলোচনা করা হয়। সভায় সরকারি কর্মকর্তা, মজুরি বোর্ডের সদস্যবৃন্দ, বিভিন্ন পত্রিকার সম্পাদক, ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের সদস্যবৃন্দ, বিভিন্ন উপজেলা প্রেস ক্লাবের প্রতিনিধিসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।