মোবাইলে শিল্পমন্ত্রী সেজে ডিপোতে চাঁদাবাজির মামলায় সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি মিলন রিমান্ডে

ঝালকাঠি জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সৈয়দ হাদিসুর রহমান মিলনকে মেঘনা পেট্রোলিয়াম ডিপোতে চাঁদাবাজির মামলায় ৩ দিনের রিমান্ডে এনেছে পুলিশ। মঙ্গলবার ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করলে ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন ঝালকাঠি জেষ্ঠ্য বিচারিক হাকিম রুবাইয়া আমেনা, জানান মামলার তদন্ত কর্মকার্তা ঝালকাঠি সদর থানার ওসি (অপারেশন) আবুল কালম আজাদ। তিনি আরও জানান, গত ২২ এপ্রিল ঝালকাঠি মেঘনা পেট্রোলিয়াম ডিপোতে গিয়ে সাবেক ছাত্রদল নেতা ইয়াছিন ভুইয়া নিজেকে শিল্পমন্ত্রীর লোক পরিচয় দিয়ে ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবী করেন।এসময় ইয়াসিনের মুঠোফোনে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর প্রক্সি দিয়ে এক ব্যক্তি ডিপো সুপারকে দাবীকৃত দুই লাখ টাকা দিতে বলেন।বিষয়টি সন্দেহ হলে ডিপো সুপার কৌশলে পুলিশকে খবর দিলে ইয়াসিন পালিয়ে যায়। তবে পরে ডিপো সুপার মো: মাহাবুবুর রহমান এ ঘটনায় সদর থানায় চাঁদাবাজির অভিযোগে মামলা করলে আসামী ইয়াসিন ভূঁইয়াকে ঘটনার ১১ দিন পর গত ৩ মে রাতে শহরের একটি বাসা থেকে গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ ইয়াসিনের মোবাইল ফোনের কথোপকথোনের কললিস্টে সৈয়দ হাদিসুর মিলনের নম্বর ও তার সম্পৃক্তা পাওয়া যায়। রিমান্ড আবেদনের সাথে কললিস্ট আদালতে দাখিল করা হয়েছে বলেও জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা। এ ঘটনার সাড়েতিন মাস পর গত ৩০ জুলাই কাঠালিয়া উপজেলা প্রকৌশল অফিসের সুপাভাইজারকে মারধরের মামলায় সৈয়দ মিলনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠায়। গত ৬ আগস্ট ডিপোতে চাঁদাদাবির মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের পরিদর্শক আবুল কালাম আজাদ মিলনকে এ মামলায় শ্যোন এ্যারেস্ট দেখানোর আবেদন করেন। আদালত মিলনকে শ্যোন এ্যারেস্ট দেখানোর পর গতকাল মঙ্গলবার তদন্ত কর্মকর্তা রিমান্ডের আবেদন করেন। এসিাবেক এ জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ঝালকাঠি শহরের মধ্যচাঁদকাঠী এলাকার সৈয়দ দেলোয়ার হোসেনের ছেলে।