নাঙ্গলকোটে দুই মাথা শিশু জন্মের গুজব

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে দুই মাথা যুক্ত শিশু জন্মের গুজব ছড়িয়ে পড়েছে। গুজবটি একজন থেকে আরেক জন এভাবে পুরো উপজেলা ব্যাপী আলোচিত খবরে রূপ নিয়েছে। সোমবার সকাল থেকে এ গুজব ছড়িয়ে পড়ে। প্রকৃতপক্ষে সকালে উপজেলা সদরের আল্ট্রা মডার্ন হাসপাতালে ভূমিষ্ঠ হওয়া নবজাতকের মাথার পিছনে একটি বড় টিউমার নিয়ে জন্মগ্রহণ করেছে। একই দিন রাতে উন্নত চিকিৎসার জন্য শিশুটিকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।


জানা যায়, চট্টগ্রাম জেলার বন্দর এলাকার মাইজ পাড়া গ্রামের মৃত সিরাজ উল্লাহর ছেলে বাচ্চু মিয়া বিবাহ করেন নাঙ্গলকোটের বাসুদাই গ্রামে। নাঙ্গলকোটে থাকা অবস্থায় বাচ্চু মিয়ার স্ত্রী প্রসূতি রুমা বেগমের ব্যাথা শুরু হলে নাঙ্গলকোট পৌর সদরের আল্ট্রা মডার্ন হাসপাতালে নিয়ে আসেন। সেখানে সোমবার সকালে রুমা একটি পুত্র সন্তান প্রসব করেন। সদ্য ভূমিষ্ঠ শিশুটির মাথার পেছনে একটি বড় টিউমার দেখা যায়। পরে শিশুটিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য একই দিন রাতে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়।


শিশুটির পিতা বাচ্চু মিয়া বলেন, আমার সন্তানের বিষয়ে কে বা কারা অহেতুক গুজব ছড়িয়ে দিয়েছে। আসলে তার মাথা একটিই। কিন্তু তার মাথায় টিউমার রয়েছে। সবাই তার জন্য দোয়া করবেন, যেন সে দ্রুত সুস্থ্য হয়ে উঠে।


এ ব্যাপারে নাঙ্গলকোট আল্ট্রা মডার্ন হাসপাতালের চিকিৎসক আবু বকর সিদ্দিক বলেন, শিশুটির দুই মাথার বিষয়টি পুরোপুরি গুজব। মূলত শিশুটির মাথায় একটি বড় টিউমার রয়েছে।