নাঙ্গলকোটে যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে ইব্রাহিম খলিল (২৫) নামের এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার (১২-জুন) বিকেলে উপজেলার আদ্রা উত্তর ইউপির মেরকট গ্রামের উত্তর পূর্ব পাড়ায়  এ ঘটনা ঘটে। সে ওই গ্রামের অহিদুর রহমানের ছেলে।

এ ঘটনার অভিযুক্ত তোফায়েল আহমেদকে আটক করেছে থানা পুলিশ।         

নিহতের ছোট ভাই মাখসুদুর রহমান ও মা অভিযোগ করে বলেন,  গত রমজানের দু’দিন পূর্বে একই গ্রামের হাজী আবদুল মান্নানের ছেলে তোফায়েল আহমেদের মৎস্য প্রজেক্টের পানি যাওয়াকে কেন্দ্র করে নিহত ইব্রাহিমের পিতা অহিদুর রহমানের সাথে মারপিটের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে পুনরায় গত ২৭ রমজানে তোফায়েল ও তার ভাতিজা দুলাল মিয়া ছেলে মনির আগ থেকে উৎ পেতে থাকা ইব্রাহিম খলিলকে একা পেয়ে আক্কাসের ডেকোরেটর দোকানে নিয়ে লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে লকডাউন থাকায় স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকের মধ্যেমে চিকিৎসা নেন। বিষয়টি স্থানীয় জহির মেম্বার কে অবহিত করলে তিনি রোজার ঈদের দুই তিনদিন পর শালিস বৈঠক করবে বলে আশ্বাস দেন। পরে তিনি শালিস বৈঠক না করে নানা তালবাহানা করেন। শুক্রবার বিকেলে  তার ভাই ইব্রাহিমের বুুকে ব্যাথা করছে বলে চিৎকার করে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। ইউপি সদস্য জহিরুল ইসলাম জানান, পানি যাওয়া কে কেন্দ্র করে ইব্রাহিমের সাথে মারপিটের ঘটনা ঘটে। এটি স্থানীয় ভাবে মিমাংসা করার চেষ্টা চলছে। কিন্তু গত চার পাঁচ দিন পূর্বে ইব্রাহিম বিষ খেয়ে লাকসাম উপজেলার চিকিৎসা নেন। সে কারণে  তার মৃত্যু হতে পারে।