সংসদের প্রশ্নোত্তরে প্রতিদিন দুই ঘণ্টা লোডশেডিংয়ের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর।

আজ বুধবার সংসদে মুজিবুল হক চুন্নুর সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন- দেশে একসময় বিদ্যুতের লোডশেডিং তীব্র ছিল, সেটা মানুষ যাতে ভুলে না যায়, সে জন্য প্রতিদিন বিভিন্ন এলাকায় গড়ে দুই ঘণ্টা করে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
শেখ হাসিনা আরও বলেন, ‘৯৬ সালে ক্ষমতায় আসার পর মূল সমস্যা ছিল বিদ্যুৎ। এবারও ক্ষমতায় আসার পর মোট বিদ্যুৎ উৎপাদন ছিল তিন হাজার ২০০ মেগাওয়াট। আমরা এটাকে ছয় হাজার ৩৫০ মেগাওয়াটে উন্নীত করেছি।’ প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমি নিজেই প্রতিদিন সকালে এক ঘণ্টা এবং বিকেলে এক ঘণ্টা করে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছি, যাতে মানুষ ভুলে না যায়, তারা কী কষ্টে ছিল। এতে অবশ্য উপকারও হয়েছে, বিদ্যুৎ বিল কম আসছে।’ তিনি দেশবাসীকে সৌরবিদ্যুৎ ব্যবহার এবং বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হওয়ার জন্য অনুরোধ জানান।
এ সময় স্পিকার বলেন, সংসদে অনেক গণ্যমান্য ব্যক্তি অফিসে না থাকলেও তাঁদের অফিসের ফ্যান, বাতি, এসি বন্ধ না করে চলে যান। এখনই তদন্ত করলে প্রমাণ পাওয়া যাবে। তিনি এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীকে কিছু বলার জন্য অনুরোধ জানান। নের ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ছিল মানসিকতা। নতুন চিন্তা বা উদ্ভাবন নিয়ে কাজ করতে গেলে এ ধরনের বাধা আসা স্বাভাবিক।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।