তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে রাশিয়ার উদ্দেশে ঢাকা ছাড়লেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে রাশিয়ার উদ্দেশে ঢাকা ছাড়লেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা



ঢাকা, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

তিন দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে রাশিয়ার উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঢাকা ছেড়েছেন।সোমবার সকাল সোয়া ৯টায় বাংলাদেশ বিমানের একটি বিশেষ ফ্লাইট প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের নিয়ে হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে।আশা করা হচ্ছে, স্থানীয় সময় বিকাল ৩টা ১০ মিনিটে বিমানটি মস্কোর শেরেমেতিয়েভো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছাবে।প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানাতে বিমানবন্দরে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, পাট ও বস্ত্রমন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহিউদ্দীন খান আলমগীর, বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী ফারুখ খান, রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু, সংস্কৃতিমন্ত্রী আবুল কালাম আজাদ, চিফ হুইপ উপাধ্যক্ষ আব্দুস শহীদ ছাড়াও মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, তিন বাহিনীর প্রধান, ঢাকায় নিযুক্ত রাশিয়ান দূতাবাসের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর এটি প্রধানমন্ত্রীর দ্বিতীয় রাশিয়া সফর। সফরকালে রাশিয়া ও বাংলাদেশের মধ্যে ১ হাজার মেগাওয়াট পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনসহ প্রতিরক্ষা, শিক্ষা ও সংস্কৃতি ক্ষেত্রে বেশ কয়েকটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার কথা রয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, রুশ নেতার আমন্ত্রণে তিনি সে দেশ সফরে যাচ্ছেন।
এরআগে ২০১০ সালের নভেম্বরে শেখ হাসিনা বাঘ সংরক্ষণ বিষয়ক আন্তর্জাতিক ফোরামের এক পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে যোগ দিতে রাশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর সেন্ট পিটার্সবার্গ সফর করেন।

শেরেমেতিয়েভো বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রী পৌঁছানোর পর উষ্ণ অর্ভ্যথনা শেষে মোটর শোভাযাত্রা সহকারে মস্কোর প্রেসিডেন্ট হোটেলে নিয়ে যাওয়া হবে। রাশিয়ায় ৩ দিনের সফরকালে তিনি এ হোটেলেই অবস্থান করবেন।

সফরের দ্বিতীয় দিনে প্রধানমন্ত্রী রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে তার ক্রেমলিন কার্যালয়ে একান্ত বৈঠক করবেন। এরপর তিনি রাশিয়ার সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠক করবেন এবং বেশ কিছু চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।

এরপর শেখ হাসিনা এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে অংশ নেবেন।

এছাড়া প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিনের দেয়া আনুষ্ঠানিক মধ্যাহ্নভোজে অংশ নেবেন। রুশ ফেডারেশনের ফেডারেল কাউন্সিলের চেয়ারপারসন ভ্যালেন্তিনা ইভানোভানো ম্যাতভিয়েনকো এবং রুশ ফেডারেশনের যোগাযোগ ও গণমাধ্যমমন্ত্রী নিকোলে নিকিফোরভ শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

এছাড়া রাশিয়ার পরমাণু সহযোগিতা সংস্থা আরওএসএটিওএম-এর জেনারেল ডিরেক্টর সার্গেই কিরিয়েঙ্কো শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

প্রধানমন্ত্রী মস্কোর নাম না জানা সৈন্যদের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ এবং বিখ্যাত ক্রেমলিন জাদুঘর ও বলশয় থিয়েটার পরিদর্শন করবেন।

শেখ হাসিনা বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম তেল ও গ্যাস অনুসন্ধান কোম্পানি গ্যাসপ্রম কেন্দ্র পরিদর্শন করবেন। প্রধানমন্ত্রী ঐতিহ্যবাহী মস্কো স্টেট ইউনিভার্সিটি পরিদর্শন করবেন। সেখানে তিনি ‘কনটেম্পরারি বাংলাদেশ-পার্সপেক্টিভ ফর কলাবোরেশন উইথ রাশিয়া’ বিষয়ে বক্তব্য দেবেন। তিনি সেখানে এক প্রশ্নোত্তর পর্বে অংশ নেবেন এবং ইউনিভার্সিটির রেক্টরের সঙ্গে মতবিনিময় করবেন।

বৃহস্পতিবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গীদের মধ্যে রয়েছেন- পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান, অ্যাম্বাসেডার অ্যাট লার্জ এম জিয়াউদ্দিন, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব এম ওয়াহিদুজ্জামান প্রমুখ।


পূর্বের সংবাদ