‘ সরকারের ভুলে মূল্যস্ফীতি বাড়ছে’ - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

‘ সরকারের ভুলে মূল্যস্ফীতি বাড়ছে’



(খবর তরঙ্গ ডটকম)

শুক্রবার এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, “দেশে মূল্যস্ফীতি বাড়ছে। বিশ্বব্যাংকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সরকারের জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির জন্য বাংলাদেশে মূল্যস্ফীতি বাড়ছে। আর মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে দেশে যে আন্দোলন চলছে, তা দমানোর জন্য সরকারের পুলিশ বাহিনি জনগণের ওপর পেপার স্প্রে (ঝাঁঝালো গ্যাস) ব্যবহার করছে।”

বিদেশে ‘ভয়ঙ্কর হিংস্র পশুকে’ বশে আনতে ওই স্প্রে ব্যবহার করা হয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সরকার গত ৩ জানুয়ারি মধ্যরাত থেকে পেট্রোল ও অকটেনের দাম লিটার প্রতি ৫ টাকা এবং ডিজেল ও কেরোসিনের দাম লিটার প্রতি ৭ টাকা বাড়িয়েছে।

বুধবার প্রকাশিত বিশ্ব ব্যাংকের ‘বৈশ্বিক অর্থনৈতিক সম্ভাবনা (গ্লোবাল ইকনোমিক প্রসপেক্ট)’ প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১২ সালের দ্বিতীয় প্রান্তিক পর্যন্ত বাংলাদেশে মূল্যস্ফীতি সহনীয় মাত্রায় বাড়ছিল। কিন্তু জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধির কারণে বাজারে ভোগ্য পণ্যের দাম বেড়ে যাবে।

সরকার তেলের দাম বৃদ্ধির ঘোষণা দেয়ার পর বিএনপিসহ ১৮ দলীয় জোট গত ৩ ডিসেম্বর সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালন করে। এরপর সিপিবি, বাসদ ও বাম মোর্চা ১৬ জানুয়ারি একই দাবিতে সারাদেশে অর্ধদিবস হরতাল করে।

শুক্রবার জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থা-জাসাস আয়োজিত শিশু-কিশোর চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তরিকুল বলেন, বিশ্ব ব্যাংকের হুঁশিয়ারি ও জনগণের দাবি মেনে সরকারের উচিৎ তেলের দাম বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করা।

প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৭৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে শেরেবাংলা নগরে তার কবর প্রাঙ্গণে এই চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করে জাসাস। দুই শতাধিক প্রতিযোগী এ প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়।

সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তরিকুল ইসলাম বলেন, “আজ গণমাধ্যমে খবর এসেছে, গফরগাঁওয়ের আওয়ামী লীগ নেতা সংসদ সদস্য গিয়াসউদ্দিন গতকাল সচিবালয়ে গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে গিয়ে নিজের কাজ করিয়ে নেওয়ার জন্য কর্মকর্তা-কর্মচারীদের হুমকি দিয়েছেন। তিনি তাদের বলেছেন, ‘আমি জিয়াউর রহমানকে খুন করেছি। আমি ফাঁসির আসামি। কাউকে ভয় পাই না। আমার কাজ দ্রুত করে দিন’।”

“আমি সরকারের কাছে দাবি জানাচ্ছি, এই আত্মস্বীকৃত খুনীকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করে বিচার করুন। এই সাংসদ নিজের এলাকায় মানুষ খুন করেছে”, বলেন তরিকুল।

শিশু-কিশোরদের জন্য জিয়ার নেয়া বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা অনুষ্ঠানে তুলে ধরে জাসাসকে জিয়ার আদর্শ গ্রামেগঞ্জে ছড়িয়ে দেয়ার আহবান জানান বিএনপির এই জ্যেষ্ঠ নেতা।

পরে তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে শিশু-কিশোর প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন।

জাসাস সভাপতি এম এ মালেকের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বিএনপির সাংস্কৃতিক সম্পাদক গাজী মাজহারুল আনোয়ার, জাসাস সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।


পূর্বের সংবাদ