দ্বিতীয় দিনের হরতাল চলছে কড়া নিরাপত্তা ও সংঘর্ষের মধ্য দিয়ে

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ডাকে টানা দ্বিতীয় দিনের হরতাল চলছে কড়া নিরাপত্তার মধ্যে । মঙ্গলবারের হরতালে চট্টগ্রামে সংঘাতে চার জনের প্রাণহানী এবং দেশের বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষ, ভাংচুর ও বিপ্তি বোমাবাজির পর মঙ্গলবার রাত থেকেই রাজধানীতে বিজিবি মোতায়েন করা হয়েছে। বিশৃঙ্খলা এড়াতে রাজধানীর প্রতিটি সড়কে রয়েছেন বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও র‌্যাব। হরতালে বিভিন্ন স্থানে জামায়াত-শিবির কর্মীদের ওপর পুলিশ গুলি চালিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। এরই  মধ্যে প্রায় শতাধিক জামায়াত-শিবির কর্মীকে আটক করা হয়েছে। এদের মধ্যে আনেকেই গুলিবিদ্ধ।
বুধবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে মিরপুরের শ্যাওড়াপাড়া এলাকায় জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্র শিবির কর্মীরা সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ সৃষ্টির চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের ধাওয়া দিয়ে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এ সময় দুই জনকে আটক করা হয়।
মিরপুর-১ ও বাঙলা কলেজ এলাকাতেও পুলিশের সঙ্গে শিবিরি কর্মীদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। বাঙলা কলেজ এলাকায় হরতালকারীরা কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করে বলে প্রত্যদর্শীরা জানান। মিরপুর-১ এলাকায় পুলিশের একটি গাড়িতেও হামলার চেষ্টা হয়।
সকাল ৭টার দিকে যাত্রাবাড়ীর রায়ের বাগ এলাকায় শিবির কর্মীরা সড়ক অবরোধের চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। এ সময় দুইজনকে আটক করা হয়।
পৌনে ৭টার দিকে নারায়ণগঞ্জের চাষাড়ায় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় শিবির কর্মীরা। এ সময় বেশ কয়েকজন আহত হন। পুলিশ চারজনকে আটক করার কথা জানিয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।