বর্তমান নির্বাচন কমিশন বিতর্ক এড়াতে পারছে না:সুজন

সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) সম্পাদক ড. বলিউল আলম মজুমদার বলেছেন, “বর্তমান নির্বাচন কমিশন বিতর্ক এড়াতে পারছে না।বিতর্ক রযেছে কমিশনের সদস্যেদের নিয়োগ এবং তাদের ব্যাকগ্রাউন্ড নিয়ে।তাদের কিছু বক্তব্য ও আচরণ নিয়েও অনেকের প্রশ্ন উঠছে। এখন প্রশ্ন দেখা দিচ্ছে কমিশনের নির্বাচনী এলাকার সীমানা পুননির্ধারণের যথার্থতা ও নিরপেক্ষতা নিয়ে। আমরা জানি না এ বিতর্কের শেষ কোথায়।”

শনিবার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংসদীয় আসনের সীমানা পুননির্ধারণের বিষয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি লিখিত বক্তব্যে এ কথা বলেন।

নির্বাচন কমিশনের সীমানা পুননির্ধারণের যথাযর্থ নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে আইন সংশোধনের দাবি জানিয়েছে সুশাসন সুজন।

এসময় আরো উপস্তিত ছিলেন সংগঠনের সভাপতি হাফিজ উদ্দিন খান।

তিনি বলেন, “নির্বচান কমিশন ক্ষমতাসম্পন্ন একটি স্বাধীন ও সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান। উদাহরণসরুপ সীমানা নির্ধারণে কমিশনকে নিজস্ব কার্যপ্রদ্ধতি নির্ধারণের ক্ষমতা দেয়া হয়েছে। আইনের সাত ধারা অনুযায়ি কমিশনের সীমানা নির্ধারণ সংক্রান্ত কার্যক্রম ও সিদ্ধান্ত আদালতে চ্যালেঞ্জ্ করা যাবে না। এছাড়া কমিশনের সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করার জন্য কোনো আপিল অথরিটিও নেই।”

লিখিত বক্তেব্যে তিনি বলেন, “কমিশন সেচ্ছাচারিতা বা পক্ষপাতদুষ্ট কাজ করলেও তাদের জবাবদিহি নিশ্চিত করার কোনো প্রদ্ধতি নেই। কমিমনের সচ্ছতা নিশ্চিত কারারও কোনো বিধান নেই।তাই আইনটি সংশোধন করে সীমানা নির্ধারণের জন্য ভারতের ন্যায় একটি স্বাধীন সীমানা নির্ধারণী কমিশন গঠনের বিষয় বিবেচনা করা আবশ্যক।”

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।