১৭দিন পর সাভারে একজনের জীবিত সন্ধান, উদ্ধারের চেষ্টা চলছে

সাভারে রানা প্লাজার ধ্বংসস্তূপের নিচে টানা ১৭ দিন পর (৪০৮ ঘণ্টা) একজন জীবিত মহিলার সন্ধান পাওয়া গেছে। তার নাম রেশমা বলে জানা গেছে। ভবন ধসের ১৭ দিন পর সন্ধান পাওয়া ওই নারী শ্রমিক অক্ষত আছেন। তিনি বসে আছেন। তার কাছে অক্সিজেন ও পানি সরবরাহের চেষ্টা চলছে। এই মুহূর্তে তাকে উদ্ধারের প্রাণপণ চেষ্টা করছে সেনাবাহিনীর উদ্ধারকারী দল। সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রণকক্ষে দায়িত্বরত কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কর্নেল ইমরান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

শুক্রবার বিকেল সোয়া তিনটার দিকে ধসে পড়া রানা প্লাজার সামনের অংশে বেসমেন্টের মসজিদে রেশমার সন্ধান পাওয়া যায়। উদ্ধারকাজ চলাকালে একটি রড নাড়িয়ে তিনি তার উপস্থিতি জানান দেন। তিনি অক্ষত রয়েছেন বলে উদ্ধারকর্মীরা জানিয়েছেন। তার কাছে পানি, বিস্কুট ও অক্সিজেন সরবরাহ করেছে উদ্ধারকারী দল।

উদ্ধারকর্মীরা জানান, তারা ভারী যন্ত্রপাতি ব্যবহারের আগে উঁকি দিয়ে জিজ্ঞেস করেন, ভেতরে কেউ আছেন কিনা। প্রথম দিকে কোনো সাড়া শব্দ পাওয়া যায়নি। পরে গোঙানির শব্দ আসে। সতর্ক হয়ে উঠেন ‍উদ্ধারকর্মীরা। এরপর ভেতর থেকে নারীকণ্ঠ ভেসে আসে ‘ভাই, আমাকে বাঁচান।’ কণ্ঠ শুনে উদ্ধারকর্মীরা হতবাক হয়ে যান। পরে একজন উদ্ধারকর্মী ভেতরে ঢুকেন এবং জানতে পারেন ওই মহিলার নাম রেশমা।ধ্বংসস্তূপের নিচে  জীবিত পাওয়ার খবর পেয়ে হাজার হাজার মানুষ ভিড় জমিয়েছেন রানা প্লাজার পাশে। তাকে অক্ষত ও জীবিত উদ্ধারের জন্য সবাই ‍প্রার্থনা করছেন।

উল্লেখ্য, গত ২৪ এপ্রিল সাভার বাজার বাসস্ট্যান্ডের পাশে রানা প্লাজা নামক ভবনটি ধসে পড়ে। এই ভবনে পাঁচটি গার্মেন্ট ছিল। এ পর্যন্ত ওই ভবন থেকে ১০৪২ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। জীবিত কাউকে উদ্ধারের আশা প্রায় দিয়েছিল উদ্ধারকারী দল।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।