নির্বাচনের সঙ্গে রাজনৈতিক সহিংসতার কোনো সম্পৃক্ততা নেই, এটা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ব্যাপার: সিইসি

‘নির্বাচনের সঙ্গে রাজনৈতিক সহিংসতার কোনো সম্পৃক্ততা নেই। এটা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ব্যাপার।’ বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী রকীবউদ্দিন আহমেদ।

তিনি বলেন, ‘এ ধরনের ঘটনা নতুন না, আগেও ঘটেছে। এজন্য সংঘাতে হত্যাকাণ্ডের দায় কোনোভাবেই নির্বাচন কমিশনের ওপর চাপানো ঠিক হবে না।’

মঙ্গলবার রাতে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে সিইসি এসব কথা বলেন। নির্বাচনকালীন সহিংসতার নিন্দা জানিয়ে আমেরিকান অ্যাম্বেসির একটি নিন্দা এবং বিরোধী দলের বক্তব্যের জবাবে তিনি আরো বলেন, ‘যে যার মত তার অবস্থান থেকে বক্তব্য দিচ্ছেন। বক্তব্য দিলেই তো আর আমরা তাদের বক্তব্যের ব্যাপারে বক্তব্য দেব, বিষয়টি এমন না।’

কাজী রকীব বলেন, ‘আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের স্বাভাবিক কার্যক্রম চালাচ্ছে। এটাতে আমাদের না জড়ানোয় ভালো।’  এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আইন মেনেই রিটার্নিং কর্মকর্তারা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। যদি কেউ অভিযোগ করে থাকেন, তাকে প্রমাণ করতে হবে স্বাক্ষর বা তারিখের ব্যাপারে কে আইন ভঙ্গ করেছে।’

পর্যবেক্ষকদের নিরাপত্তা নিয়ে ইলেকশন ওয়ার্কিং গ্রুপের শঙ্কা প্রকাশের ব্যাপারে সিইসি বলেন, ‘আমাদের ছয় হাজার নিরাপত্তা বাহিনী কাজ করবে। আশা করি, নিরাপত্তায় সমস্যা হবে না।’

ইলেকশন ওয়ার্কিং গ্রুপের সঙ্গে বৈঠকের ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘তারা নির্বাচনে কেন্দ্রভিত্তিক পর্যবেক্ষণের সুযোগ চেয়েছে। আমরা বলেছি আপনারা প্রতিটা কেন্দ্র ঘুরে আসেন। প্রয়োজনে এক কেন্দ্রে দুই তিন বার ঘুরেন। তবে অন্যদের সুযোগ দিতে হবে। এছাড়া আমরা বলেছি আপনারা প্রয়োজন মনে করলে ভোট গণনার সময়ও উপস্থিত থাকতে পারেন।’

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।