নির্বাচনের আয়োজনকে গদি ভাগাভাগি বললেন রফিক উল হক

৫ জানুয়ারি দশম নির্বাচনের যে আয়োজন চলছে তাকে গদি ভাগাভাগি বলে মন্তব্য করেছেন প্রবীণ আইনজীবী ব্যারিস্টার রফিক উল হক।

রোববার বেসরকারি টেলিভিশন সময়’র সঙ্গে আলাপকালে রফিক উল হক এই মন্তব্য করেন।

প্রবীণ এই আইনজীবী বলেন, “আমাদের ইতিহাস থেকে শিক্ষা নেয়া উচিত। কিন্তু আমরা বাঙালিরা ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিই না।”

তিনি বলেন, “মানুষ যে ইতিহাস থেকে শিক্ষা নেয় না এটিই আবার প্রমাণিত হলো এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে।”

গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রাখার স্বার্থে দুই দলের মধ্যে ঐক্যমতের ভিত্তিতেই নির্বাচনকালীন সরকারব্যবস্থা প্রবর্তনই কেবল এর সমাধান হতে পারে বলে মনে করেন ব্যারিস্টার রফিক।

সময় সংবাদে বলা হয়, দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বাকি আর মাত্র ১৩ দিন। কিন্তু নির্বাচনী আমেজ লক্ষ্য করা যাচ্ছে না দেশের কোথাও। নির্বাচনের ফলাফল নির্ধারিত হয়ে গেছে অনেক আগেই। তাই এ নির্বাচনের গ্রহণযোগ্যতা প্রশ্নবিদ্ধ দেশে ও দেশের বাইরে।

দেশের ইতিহাসে প্রধান বিরোধী দল ছাড়া নির্বাচন হয়েছে এর আগেও। ১৯৯৬ সালের পনের ফেব্রুয়ারির সে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিল ৪১টি দল, আর ভোটার উপস্থিতি ছিল ২৭ ভাগ। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ৩৯ জন নির্বাচিত হয়েছিল তখন। আর এবারে ১৫৪ টিরও বেশি আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতছে আওয়ামী লীগ।

সংবিধান পরিবর্তন করে নতুন নির্বাচনকালীন সরকার ব্যবস্থার প্রবর্তনই এ সংকট উত্তরণের উপায় হতে পারে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।