রাজধানীর কালশীর ঘটনাকে ‘একটি দুর্ঘটনা’ হিসেবে উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

রাজধানীর কালশীর ঘটনাকে ‘একটি দুর্ঘটনা’ হিসেবে উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে এবং পরিস্থিতি ঘোলাটে করতে কারো উসকানির প্রমাণ পাওয়া গেলে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।”

 

শনিবার বিকাল সাড়ে চারটায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন। পল্লবীর ঘটনায় আহত-নিহত ব্যক্তিদের দেখতে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী হাসপাতালে গিয়েছিলেন। সেখানে পল্লবীর ঘটনায় নিহতদের স্বজনদের সঙ্গেও কথা বলেন তিনি। এ সময় পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) হাসান মাহমুদ খন্দকার ও ডিএমপি কমিশনার বেনজির আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

 

আতশবাজি ফোটানোকে কেন্দ্র করে ঘটনার সূত্রপাত হয়েছে বলেই মনে করেন আসাদুজ্জামান খান। তবে তিনি বলেন, “প্রকৃত কারণ উদঘাটনে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্তে কারো উসকানিতে পরিস্থিতি ঘোলাটে হওয়ার প্রমাণ পাওয়া গেলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।”

 

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, “পুলিশ কর্মকর্তার গুলিতে কেউ নিহত হলে ওই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধেও আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। কেউ ছাড় পাবেন না।” শবে বরাতের রাতে রাজধানীতে আতশবাজি পোড়ানো নিয়ে পুলিশ কমিশনার বেনজির আহমেদ বলেন, শুক্রবার রাতে ঢাকা শহরে  আতশবাজি ফোটানো প্রতিরোধে পুলিশের চেষ্টা থাকা সত্ত্বেও সব জায়গায় সেটা সম্ভব হয়নি।

পটকা বা আতশবাজি ফোটানোর বিষয়ে আগে থেকেই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল জানিয়ে কমিশনার উষ্মা প্রকাশ করে বলেন “পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে কি তবে ঘরে ঘরে গিয়ে স্তব্ধ করতে হবে?”  এমন অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে সব মানুষের সচেতনতা ও সহযোগিতার প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন তিনি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।