এক মাস সিয়াম সাধনার পর আনন্দ-উৎসবের মধ্যে দিয়ে ঈদুল ফিতর উদযাপন

এক মাস সিয়াম সাধনার পর যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও আনন্দ-উৎসবের মধ্য দিয়ে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করছে বাংলাদেশের মুসলমানগণ।

 

এটি মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব। গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির মধ্যেই জাতীয় ঈদগাহে সকালে ঈদের প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়। রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিরা জামাতে শরিক হন।

 

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমেও ঈদের কয়েকটি জামাত অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় ঈদগাহ এবং জাতীয় মসজিদে নারীদের নামাজের জন্য ছিল বিশেষ ব্যবস্থা।

 

প্রতিবারের মতো এবারও দেশের ঈদুল ফিতরের বৃহত্তম জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানে।

 

সেখানে গাজায় ইসরায়েলি হামলার নিন্দা জানিয়ে মুসলিম সম্প্রদায়কে এ হত্যাকাণ্ড ঠেকাতে এগিয়ে আসার আহ্বান জানানো হয়।

 

ঈদ উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন সরকারি হাসপাতাল, কারাগারসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে উন্নত মানের খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে।

 

বেসরকারি টেলিভিশন ও রেডিও চ্যানেলগুলো বিশেষ অনুষ্ঠানমালা আয়োজন করেছে। সংবাদপত্রগুলো প্রকাশ করে ঈদের বিশেষ সংখ্যা।

 
এবার টানা নয় দিনের ছুটি থাকায় অনেকেই গ্রামের বাড়ি চলে গেছেন। ফলে এবার রাজধানী ঢাকা প্রায় ফাঁকা।

 

তাই নগরবাসীকে ঈদের দিন স্বাচ্ছন্দ্যে রাস্তায় চলাচল করতে দেখা গেছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।