অপরাধকর্মের পৃষ্ঠপোষক মন্ত্রী-এমপিরা!: বেসরকারি টেলিভিশন ইন্ডিপেন্ডেন্ট

সোমবার বেসরকারি টেলিভিশন ইন্ডিপেন্ডেন্টের এক সংবাদ প্রতিবেদনে সরকারের কয়েকজন মন্ত্রী, এমপি আর প্রভাবশালী রাজনৈতিক নেতা নানারকম অপরাধকর্মে পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছেন বিএনপি ও জামায়াতের নেতাকর্মীদের। এরকম অভিযোগ তোলা হয়েছে সরকারেরই এক বিশেষ তদন্ত প্রতিবেদনে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে এ প্রতিবেদন। তালিকাভুক্তদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

 
প্রতিবেদনে বলা হয়, মরণ নেশা ইয়াবার বিস্তার ঠেকাতে যখন হিমশিম খাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, তখন এ ব্যবসা নির্বিঘ্ন করতে স্থানীয়ভাবে গড়ে উঠেছে রাজনৈতিক ঐক্য। কক্সবাজারের ইয়াবা ব্যবসায় জড়িত বিএনপি ও জামায়াতের পাঁচ নেতার পৃষ্ঠপোষক হিসেবে গোপন প্রতিবেদনে নাম এসেছে সরকার দলীয় সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদির।

ওই প্রতিবেদনে আরো উল্লেখ, কুমিল্লায় টেন্ডারবাজির সঙ্গে জড়িত দক্ষিণ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও সিটি মেয়র মনিরুল ইসলাম সাক্কুকে পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছেন আওয়ামী লীগের স্থানীয় সংসদ সদস্য আকম বাহারউদ্দিন বাহার। গাজীপুরে টেন্ডারবাজিতে জড়িত বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য মুজিবর রহমানের পৃষ্ঠপোষক হিসেবে নাম এসেছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আকম মোজাম্মেল হকের। তবে অভিযোগটি অস্বীকার করেছেন তিনি।

ইন্ডিপেন্ডেন্ট জানায়, খোঁজ নিয়ে জানা গেছে প্রতিবেদনটি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনির কাছে পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নেত্রকোনায় টেন্ডার ও পরিবহন চাঁদাবাজিতে জড়িত বিএনপির ছয় নেতার পৃষ্ঠপোষক জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নুর খান মিঠু। স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এরকম কোনো প্রতিবেদন পাওয়ার কথা সরাসরি স্বীকার করেননি। তবে বলেছেন, সব প্রতিবেদনই তারা গুরুত্ব সহকারে নেন।

 
প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিএনপির অর্থদাতা ও দলটির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর অব. হাফিজ উদ্দিনের ঘনিষ্ঠ সহচর মাদারীপুরের ঠিকাদার আলমগীর খান। সারাদেশে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের টেন্ডার তার কব্জায়। তাকে পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছেন নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান ও সংসদ সদস্য নূর-ই-আলম চৌধুরী লিটন।

নৌ পরিবহন মন্ত্রী বললেন, আলমগীর খান বিএনপি করে এটা ঠিক নয়। প্রতিবেদনে কেবল ঢাকা বিভাগেই অপরাধকর্মের সঙ্গে জড়িত ১৬০ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে, যাদের পৃষ্ঠপোষক হিসেবে ১২ জনকে চিহ্নিত করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।