মিয়ানমার নৌবাহিনীর হাতে আটক শতাধিক বাংলাদেশি

মিয়ানমারের নৌবাহিনীর হাতে আটক শতাধিক বাংলাদেশি সেদেশের কারাগারে মানবেতর জীবনযাপন করছে বলে অভিযোগ ফিরে আসা লোকজনের। বিভিন্ন সময়ে কক্সবাজার থেকে সমুদ্রপথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে এরা আটক হয়। দুদেশের সরকারি পর্যায়ে আলোচনার পর টেকনাফ স্থলবন্দর দিয়ে বুধবার ফেরত আনা হয় এমনই ৩২ জনকে। খবর ইন্ডিপেন্ডেন্ট টেলিভিশনের।

ভালো চাকরির লোভে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বহুলোক কক্সবাজার থেকে সমুদ্রপথে অবৈধভাবে থাইল্যান্ড-মালয়েশিয়া যাওয়ার চেষ্টা করেন। তবে প্রতারক চক্রের খপ্পরে পড়ে অনেকের ঠাঁই হয় ভিন দেশের কারাগারে।

 

থাইল্যান্ডের কারাগারে আটক ৪০ বাংলাদেশিকে দেশে ফিরিয়ে আনার সপ্তাহ খানেকের মধ্যে এবার মিয়ানমার থেকে আনা হলো ৩২জন। এরা দুই বছর থেকে পাঁচ বছর মিয়নামারের জেলে আটক ছিলেন। আরো যারা আটক আছে তারা কৌশলে সাদা জামায় তাদের নাম, ঠিকানা লিখে পাঠায় ফেরত আসাদের মাধ্যমে। দালাল ধরে মালয়েশিয়ায় যাওয়ার চেষ্টা, আটক হওয়ার পর শারীরিক নির্যাতনের বিবরণও দিয়েছেন তারা।

দুদেশের  সরকারি যোগাযোগের কারণে এভাবে বন্দীদের ফেরত আনা সম্ভব হচ্ছে বলে জানায় প্রশাসনের কর্মকর্তারা। মিয়ানমারের কারাগারে আটক সব বন্দীদের পর্যাযক্রমে ফেরত আনার ব্যবস্থা হচ্ছে বলে জানায় পুলিশ।

একটা সময় ছিল যখন পাশের দেশ মিয়ানামারে কারাগারে আটক বাংলাদেশিদের ব্যাপারে কোনো খোঁজ-খবর পাওয়া যেত না। এখন দুদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নীবিড় যোগোযোগের কারণে বন্দী বিনিময় হয়েছে সহজ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।