সহিংসতার মধ্যে ইউপি নির্বাচন সম্পন্ন, এ পর্যন্ত প্রাপ্ত ফলাফলে বিজয়ী যারা

জাল ভোট, ব্যালট পেপার ছিনতাই ও গোলাগুলির মধ্যে বৃহস্পতিবার দেশের বিভিন্ন স্থানে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সাধারণ, বিভিন্ন পদে উপনির্বাচন, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচন, পৌরসভা সাধারণ ও বিভিন্ন পদে উপনির্বাচন এবং খুলনা ও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ১টি করে সাধারণ ওয়ার্ডের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এই নির্বাচনে দিনব্যাপী দেশের বিভিন্ন স্থানে ব্যাপক সহিংসতার খবর পাওয়া গেছে। বেশ কয়েকটি জায়গায় জাল ভোট প্রদান, ব্যালট বাক্স ও পেপার ছিনতাইয়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিভিন্ন ভোট কেন্দ্রে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর লোকজন ও এজেন্টদের মারধর করে বের করে দেয়ার অভিযোগ রয়েছে বিস্তর। এছাড়া নির্বাচনী সহিংসতায় টাঙ্গাইলে একজন নিহত হয়েছেন।

বিচ্ছিন্ন ঘটনার মধ্যে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হয়। এরপর ভোট গণনা চলছে। ভোট গণনার সময় বিভিন্ন স্থানে উত্তেজনা ও মারামারির খবর পাওয়া যাচ্ছে।

এ পর্যন্ত বেশ কয়েকটি এলাকার প্রাথমি ফলাফল পাওয়া গেছে। এ পর্যন্ত প্রাপ্ত ফলাফল নিম্নে দেয়া হলো-

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ড উপ-নির্বাচনে আসাদুজ্জামান মোল্লা (পানির বোতল) ১৫৫৫ ভোট পেয়ে বে-সরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এই ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এর আগে সকাল আটটা থেকে চারটা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হয়। নির্বাচনে তার প্রতিদ্বন্দ্বি আমিনুল হক ভুইয়া (উট পাখি) পেয়েছেন ১৫৪০, দেওয়ান আশরাফুল (পাঞ্জাবী প্রতীক) ৮৬৪ ও আরমান মিয়া (ডালিম) ১৬ ভোট পেয়েছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আবুল ফাতে মোহাম্মদ সফিকুল ইসলাম জানান, কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোথাও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

উল্লেখ্য, কাঞ্চন পৌর ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর দেওয়ান শফিকুর রহমানের মৃত্যুতে পদটি শূন্য থাকায় উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এ ওয়ার্ডে দুইটি কেন্দ্রে মোট ৫০৭৬ জন ভোটার রয়েছে। রাণীপুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২১৯২ জন ও চৌধুরীপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২৮৮৪ জন ভোটার রয়েছেন।

জকিগঞ্জে মাসুদ ও রসলাল নির্বাচিত
এদিকে সিলেটের জকিগঞ্জ পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডে যুবলীগ নেতা মাসুদ আহমেদ নির্বাচিত হয়েছেন। অপরদিকে একই উপজেলার কাজলসার ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডে রসলাল বিশ্বাসকে বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।

সুনামগঞ্জে পৌরসভায় নাদের বখত নির্বাচিত
সুনামগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে উপ নির্বাচনে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থী নাদের বখত (প্রাপ্ত ভোট ১৬৩২০)। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হিসেবে রয়েছেন মোবাইল মার্কা নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী দেওয়ান গানিউল সালাদিন(প্রাপ্ত ভোট ৮৩২০)। তৃতীয় স্থানে রয়েছেন বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী সুজাউর রাজা সুমন (প্রাপ্ত ভোট ১৫০৪)।

ফেঞ্চুগঞ্জ সদর ইউনিয়নে বদরুদ্দোজ্জা নির্বাচিত
সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ফেঞ্চুগঞ্জ সদর ইউনিয়নে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বেসরকারীভাবে প্রাপ্ত ফলাফলে বিজয়ী হয়েছেন আল ইসলাহ মনোনীত প্রার্থী কাজী বদরুদ্দোজ্জা। তিনি আনারস প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছে।

উত্তর ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়নে এমরান নির্বাচিত
সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার  ৫নং উত্তর ফেঞ্চুগঞ্জ ইউনিয়নে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বেসরকারীভাবে প্রাপ্ত ফলাফলে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মোহাম্মদ এমরান উদ্দিন। ৯টি কেন্দ্র মিলিয়ে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ২৬৩৬ ভোট।

ঘিলাছড়া ইউনিয়নে লেইস চৌধুরী নির্বাচিত
ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ৩নং ঘিলাছড়া ইউনিয়নে ইউনিয়নে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বেসরকারীভাবে প্রাপ্ত ফলাফলে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনিত প্রার্থী আব্দুল লেইস চৌধুরী। ৯টি কেন্দ্র মিলিয়ে নৌকা প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ৩৩৩৩ ভোট।

উত্তর কুশিয়ারা ইউনিয়নে আহমেদ জিলু নির্বাচিত
সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার উত্তর কুশিয়ারা ইউনিয়নে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বেসরকারীভাবে প্রাপ্ত ফলাফলে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আহমেদ জিলু। তিনি ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছে।

মাইজগাঁও ইউনিয়নে সুফিয়ানুল করিম নির্বাচিত
সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার মাইজগাঁও ইউনিয়নে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বেসরকারীভাবে প্রাপ্ত ফলাফলে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সুফিয়ানুল করিম। তিনি ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছে।

তেতুলিয়া ইউনিয়নে কালাম নির্বাচিত
নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে তেতুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ উপ-নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ বিজয়ী হয়েছেন। তিনি চার হাজার ৮৭৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে জয় লাভ করেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী সামিনা সুলতানা পেয়েছেন চার হাজার ২৬৬ ভোট। এই ইউনিয়নে মোট ভোটার ছিল ১৩ হাজার ৭৯৪ জন। গত ইউপি নির্বাচনে আবুল কালাম আজাদ ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে হেরেছেন। কিন্তু মাত্র দুই বছর পর তিনি নৌকা প্রতীক নিয়ে জিতেছেন।

ধানের শীষ নিয়ে স্বামীর পদে জিতেছেন মর্জিনা
বগুড়ার কাহালু উপজেলার মালন্চা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে ধানের শীষ নিয়ে জিতেছেন গৃহবধূ মর্জিনা বেগম। তার স্বামী বিএনপি নেতা আব্দুল মোত্তালেব মন্ডলের মৃত্যুতে বৃহস্পতিবার এখানে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। কাহালু উপজেলায় কোন নারী চেয়ারম্যান প্রার্থীর বিজয় এটাই প্রথম। তিনি বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী হিসেবে পেয়েছেন ৮ হাজার ৫৪৬ ভোট। তার নিকটতম ছিলেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী মালঞ্চা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ডাঃ আব্দুল হাকিম (নৌকা) ৭ হাজার ৩১৬ ভোট। এ ছাড়া স্বতন্ত্র প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন মুকুল (আনারস) ৮৬২ ভোট ও আ’লীগ নেতা আব্দুল জোব্বার মুন্সি (মোটর সাইকেল) পেয়েছেন ৭৯ ভোট।

নাজিরহাট পৌরসভায় সিরাজ নির্বাচিত
চট্টগামের ফটিকছড়ি উপজেলার নাজিরহাট পৌরসভা প্রথম নির্বাচনে বেসরকারি ফলাফলে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপি’র মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের এস এম সিরাজ উদ দৌলা। মেয়র পদে সাবেক দৌলতপুর ইউপি’র দু’বারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান এস এম সিরাজ দৌলা ৯ হাজার ৫৮২ ভোট পেয়ে বেসরকারী ভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুহাম্মদ মুজিবুল হক পেয়েছেন ৪ হাজার ৫৯৩ ভোট।

এই নির্বাচনে সংরক্ষিত আসনের ১ নম্বর ওর্য়াডে ছলিমা আকতার (জবা ফুল), ২ নম্বর ওয়ার্ডে রেজিয়া বেগম (জবা ফুল), ৩ নম্বর ওয়ার্ডে আয়েশা আকতার (চশমা) নির্বাচিত হয়েছেন।

পুঠিয়ার দুই ইউপিতে আ’লীগের জয়
রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার এই দুই ইউপি নির্বাচনে মধ্যে ভালুকগাছি ক্ষমতাসীন আ’লীগের মনোনীত প্রার্থী মোঃ তাকবির হাসান (নৌকা) প্রতিকে ১৪৫৮ ভোটের ব্যবধানে ৯৭০৪ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। অপর দিকে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী তৌহিদুল ইসলাম (ধানের শিষ) প্রতিকে ৮২৪৬ ভোট পেয়ে পরাজিত হন। স্বতন্ত্র প্রার্থী শাহজাহান আলী (আনারস) প্রতিকে ১৪৩০ ভোট পেয়েছে, স্বতন্ত্র প্রার্থী মাইনুল ইসলাম তোতা (মোটরসাইকেল) প্রতিকে ৩২ ভোট পেয়েছেন, মুনজুর রহমান (চশমা) প্রতিকে ১০৪০ ভোট পেয়েছেন এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী নাজমুল গনি (পিন্টু) (ঘোড়া) প্রতিকে ৩৮ ভোট পেয়ে পরাজিত হয়েছেন।

এদিকে শিলমাড়িয়া ইউপি নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আ’লীগের মনোনীত প্রার্থী মো: সাজ্জাদ হোসেন মুকুল (নৌকা) প্রতিকে ৪৮৯১ ভোটের ব্যবধানে ১৩৩৩০ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। অপর দিকে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আবু হায়াত মোহা: আসাদুজ্জামান (ধানের শিষ) প্রতিকে ৮৪৩৯ ভোট পেয়ে পরাজিত হয়। বিএনপির স্বতন্ত্র প্রার্থী আজহারুল ইসলাম (হাতুর) প্রতিকে ৬৮৪ ভোট পেয়ে ৩য় হয়েছেন

নকলা উপজেলা পরিষদে সোহাগ চেয়ারম্যান নির্বাচিত
শেরপুরের নকলা উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী অ্যাডভোকেট মাহবুবুল আলম সোহাগ জয়ী হয়েছেন। বেসরকারিভাবে প্রাপ্ত ফলাফল অনুযায়ী, আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাহবুবুল আলম সোহাগ ৫১ হাজার ৫৫২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বোরহান উদ্দিন পেয়েছেন ১৩ হাজার ৬৩৬ ভোট।

খুলনা সিটি করপোরেশন ৬ নম্বর ওয়ার্ডে প্রিন্স নির্বাচিত
খুলনা সিটি করপোরেশনের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের উপনির্বাচনে বিএনপি-সমর্থিত কাউন্সিলর পদপ্রার্থী শেখ সামসুদ্দিন আহমেদ প্রিন্স বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। তাঁর প্রাপ্ত ভোট ৪ হাজার ৬৯৩। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দী আওয়ামী লীগ-সমর্থিত মিজানুর রহমান মিজা তরফদার পেয়েছেন ৩ হাজার ১৫২ ভোট। খুলনা সিটি করপোরেশনের এই ৬ নম্বর ওয়ার্ডটি খালিশপুর ও দৌলতপুর থানার কিছু এলাকা নিয়ে গঠিত। এখানে মোট ভোটারের সংখ্যা ১৪ হাজার ১৪৬ জন।

সুত্র: আরটিএন ডটনেট