পেপারওয়ার্কে সীমাবদ্ধ না থেকে বাস্তবভিত্তিক কাজ করার আহ্বান এলজিআরডি মন্ত্রীর - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

পেপারওয়ার্কে সীমাবদ্ধ না থেকে বাস্তবভিত্তিক কাজ করার আহ্বান এলজিআরডি মন্ত্রীর



নিউজ ডেস্ক, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আহ্বান জানিয়ে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেন দেশের উন্নয়নের লক্ষ্যে শুধু পরিকল্পনা ও পেপারওয়ার্কের মধ্যে সীমাবদ্ধ না থেকে বাস্তবভিত্তিক কাজ করুন।


বৃহস্পতিবার পল্লী উন্নয়ন বোর্ড (বিআরডিবি) আয়োজিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এই আহ্বান জানান।


এলজিআরডি মন্ত্রীর বলেন, উন্নয়নমূলক কাজ করার সময় পরিকল্পনা এবং কাগজপত্র ঠিক করতেই অনেক সময় চলে যায়। এজন্য কাজের সুফল পেতে অনেক দেরি হয়। তাই দ্রুততম সময়ে বাস্তবভিত্তিক কাজ করার ওপর জোর দেন তিনি।


স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের অধীন সকল প্রতিষ্ঠানকে স্বনির্ভর হওয়ার আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, প্রতিষ্ঠানের অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্ব, দুর্নীতি কখনোই জাতির জন্য শুভকর কিছু বয়ে আনতে পারে না। এজন্য স্থানীয় সরকারের সকল প্রতিষ্ঠানকে দুর্নীতি মুক্ত থাকতে হবে এবং সকল পর্যায়ে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে।


স্থানীয় সরকার মন্ত্রী সবাইকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলা বিনির্মাণে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহ্বান জানান।


পল্লী উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক সুপ্রিয় কুমার কুন্ডুর সভাপতিত্বে আলোচনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য এবং পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব মো. রেজাউল আহসান।


বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য বলেন, বাঙালির মুক্তি ও অধিকার আদায়ে প্রতিটি গণতান্ত্রিক ও স্বাধিকার আন্দোলনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নেতৃত্ব দেন। প্রতিটি ক্ষেত্রেই তাঁকে বার বার বিভিন্ন চক্রান্ত ও ষড়যন্ত্রের সম্মুখীন হতে হয়েছে, করতে হয়েছে কারাবরণ। 


তিনি বলেন, তাই বঙ্গবন্ধুর চেতনাকে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তরে ছড়িয়ে দিতে হবে। বঙ্গবন্ধুর কর্মময় জীবন থেকে শিক্ষা নিয়ে পরবর্তী প্রজন্মকে গড়ে তুলতে হবে।


পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব মো. রেজাউল আহসান বলেন, একটি যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশকে বঙ্গবন্ধু স্বল্প সময়ের মধ্যেই দৃশ্যমান উন্নয়ন করেছিলেন। তার লক্ষ্য ছিল প্রতিটি গ্রামই হবে স্বয়ং সম্পূর্ণ। আমরা সেই লক্ষ্যেই প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে কাজ করছি।


পরে স্থানীয় সরকার মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রী এতিমদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ করেন এবং ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবার-পরিজন এবং অন্যান্যদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া করেন।


এর আগে, স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম এবং প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য পল্লী ভবনে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি উন্মোচন করেন এবং পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান।


জাতীয় এর অন্যান্য খবরসমূহ
লাকসাম এর অন্যান্য খবরসমূহ
পূর্বের সংবাদ