কাউখালীতে উপজেলা মৎস্য অফিসারের সংবাদ সম্মেলনে যোগ দেয়নি সাংবাদিকরা

পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলা মৎস্য অফিসের ডাকা সংবাদ সম্মেলনে কোন সাংবাদিক যোগ দেয়নি। মাছ, জাল, চাল ও ঋন বিতরনে অনিয়ম ও দুর্নীতির বিষয়ে এবং অবাদে কারেন্ট জাল পাতা ও ঝাটকা ইলিশ ধরা সম্পর্কে তথ্য জানতে চাইলে  সাংবাদিকদের সঙ্গে অসহযোগীতা ও অসৌজন্যমুলক আচরনের কারনে  ওই বর্জনের ঘটনা ঘটে। সম্প্রতি বিভিন্ন পুকুর ও জলাশয়ে মাছ চাষ বাড়ানোর জন্য মাছের পোনা বিতরনে অনিয়ম, জেলেরে মধ্যে চাল বিতরন, ঋন বিতরনে বিভিন্ন প্রকার অনিয়মের অভিযোগ পেয়ে সাংবাদিকরা সঠিক তথ্য জানার জন্য মৎস্য অফিসে গিয়ে উপজেলা মৎস্য অফিসার মনোজ কুমার সাহার কাছে মৎস্য জীবিদের তালিকা, মাছ বিতরনের তালিকা, চাল বিতরনের তালিকা , ঋন বিতরন সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি কোন কথা বলতে রাজি হননি। তিনি বিষয় গুলো এরিয়ে গিয়ে বিভিন্ন সংস্থা কথা যেমন, চেয়ারম্যান-মেম্বার, উপজেলা ত্রান বিভাগের  লোকজন জানে বলে এরিয়েযান। তাছাড়া সময় মত পুলিশ পাওয়া যায় না এধরনের  নানা কথা বলেন।

 
১২ অক্টোবর  খেকে ২ নভেম্বর পর্যন্ত প্রজননন মৌসুমে ইলিশ মাছ ধরা বন্ধ করেছে সরকার। এসময় ইলিশ ধরা, বিক্রয়, মজুত করা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এ ঘেষনার পর থেকে একদল অসাধু জেলেরা অফিসের কর্মকতৃা কমৃচারীদের সাথে আঁতাত করে ছোট ছোট নৌকায় কারেন্ট জালসহ  বিভিন্ন ধরনের মাছ নিধনের জাল দিয়ে নদীর তলদেশ ও দু’তীর পর্যন্ত আটকিয়ে মাছ আহরণ করছে।  এ বিষয়ে সাংবাদিকরা কথা বলতে তার অফিসে গিয়ে না পেয়ে ফোনে কথা বললে তিনি আফিসে আসুন বলে আর কোন কথা না শুনে ফোন বন্ধ করে দেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।