রাবির অস্ত্রধারী সেই ছাত্রলীগ নেতার রগ কর্তন, প্রতিবাদে ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, ২২ নভেম্বর (খবর তরঙ্গ ডটকম)-রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) ছাত্রলীগের বহিস্কৃত সহ-সভাপতি আখেরুজ্জামান তাকিমের হাত ও পায়ের রগ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।বুধবার রাত ৮টার দিকে ক্যাম্পাসের বেগম খালেদা জিয়া ও মুন্নুজান হলের মাঝামাঝি স্থানে এ ঘটনা ঘটে।এ ঘটনার জন্য ছাত্রশিবিরকে দায়ী করে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা রাত ৯টার দিকে নগরীর লক্ষ্মীপুরে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালে হামলা, ভাঙচুর ও আসবাবপত্রে আগুন ধরিয়ে দেয়।এর আগে তারা ঘোষপাড়ায় ছাত্রশিবির পরিচালিত মেডিকেল কোচিং সেন্টার রেটিনায় অগ্নিসংযোগ করে।
জানা গেছে, রাত ৮টার দিকে বিদ্যুৎ চলে গেলে মোটরসাইকেল আরোহী অজ্ঞাত দুই যুবক ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকিমের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়ে তার হাত ও পায়ের রগ কেটে দেয়। এ সময় দুই রাউন্ড গুলির শব্দও শোনা যায়।

পরে আহত অবস্থার তার সহকর্মীরা তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। তাকিমের হাত ও পায়ের রগ কাটার বিষয়টি নিশ্চিত করে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজে হাসপাতালের ইন্টার্নি চিকিৎসক মাহবুব আলম জানান, তাকিমের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

মহানগর পুলিশের কমিশনার এস এম মনির-উজ-জামান জানান, হামলার খবর পাওয়া মাত্রই পুলিশের একটি বিশেষ দল ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, হামলাকারীদের খুব অল্প সময়ের মধ্যে চিহ্নিত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্তা নেয়া হবে।

রাবি শাখা ছাত্রলীগ সভাপতি আহম্মেদ আলী বলেন, ছাত্রশিবিরের কর্মীরা ছাত্রলীগ নেতা তাকিমকে হাত ও পায়ের রগ কেটে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে। শিবির আবার ক্যাম্পাসে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরি করার পাঁয়তারা চালাচ্ছে।

তবে ছাত্রশিবিরের সভাপতি আশরাফুল আলম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে।

উল্লেখ্য, গত ২ অক্টোরব ক্যাম্পাসে শিবিরের সঙ্গে সংঘর্ষের সময় তাকিম পুলিশের সামনে প্রকাশ্যে গুলি ছুঁড়ে গণমাধ্যমে ব্যাপক সমালোচতি হন।

এর আগে গত ১৫ জুলাই রাতে ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের কর্মী আবদুল্লাহ আল হাসান ওরফে সোহেল রানা গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান। অভিযোগ রয়েছে, এই ঘটনার সূত্রপাত ঘটিয়েছিলেন আখেরুজ্জামান তাকিম ও সাংগঠনিক সম্পাদক তৌহিদ আল হোসেন তুহিন।

এ ঘটনার পর ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক শেখ রাসেল স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সংগঠনের শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও সংগঠনবিরোধী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তাঁদের দুজনকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।