ইসলামী দল নিষিদ্ধের পাঁয়তারা চলছে নিবন্ধনের নামে - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

ইসলামী দল নিষিদ্ধের পাঁয়তারা চলছে নিবন্ধনের নামে



(খবর তরঙ্গ ডটকম)

ঢাকা, ২৭ নভেম্বর (খবর তরঙ্গ ডটকম)-  নিবন্ধনের নামে ইসলামীদলগুলোকে নিষিদ্ধের পাঁয়তারা চলছে বলে মনে করেন ১৮দলীয় জোটের শরিক দল খেলাফত মজলিস।মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সম্মেলন কক্ষে রাজনৈতিক দলের সাথে সংলাপে দলটির মহসচিব অধ্যাপক ড. আহমদ আব্দুল কাদের এ কথা বলেন।তিনি বলেন, কমিউনিষ্ট এবং বামদলগুলোর গঠনতন্ত্রও তো সাংঘর্ষিক। তাহলে তাদেরকে কেন গঠনতন্ত্র সংশোধনের চিঠি দেওয়া হয় না।তিনি তত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা পুনর্বহাল এবং রাজনৈতিকদলগুলোর আস্থা অর্জনের জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি সুপারিশ করেন।

দলটির নায়েবে আমির মাওলানা সৈয়দ মুজিবুর রহমান বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচনসহ সকল পর্যায়ের নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের। কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয় আমাদের নির্বাচন কমিশন অবাধ, নিরপেক্ষ, সুষ্ঠু নির্বাচন পরিচালনায় এখনও জনগণের আস্থা অর্জন করতে পারেনি।

এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য প্রয়োজন নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকার। তার সাথে রাজনৈতিক দলসমূহের আস্থাও অর্জন করতে হবে নির্বাচন কমিশনকে।

তিনি আরো বলেন, নির্বাচনী ব্যয় ১৫ লাখ টাকার বেশি যাতে কেউ খরচ না করে তার জন্য কমিশনকে ব্যবস্থা নিতে হবে। যার কারণ সন্ত্রাসী গ্রুপ ও টাকাওয়ালারা জয়ী হয়। এ আইন কার্যকর করতে হবে।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনকে জনগণ স্বাধীন মনে করে না। এর জন্য কমিশনকে স্বাধীন ভাবে কাজ করে জনগণের আস্থা অর্জন করার আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, নির্বাচন চলাকালীন সময় প্রসাশনকে পূর্নভাবে কমিশনের হাতে রাখতে হবে। ইভিএমের ব্যাপারে তিনি বলেন, ইভিএম’এর ব্যবহার সম্পর্কে বিরোধ রয়েছে। এর উপর জনগণের সম্পূর্ণ আস্থা অর্জন না করা পর্যন্ত ব্যবহার করা যাবে না। সাধারণ নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার করতে হলে সকল রাজনৈতিক দলের মতামত নিয়ে তা করতে হবে।

তিনি বলেন, রাজনৈতিক দলের লক্ষ্য উদ্দেশ্য নিয়ে আপত্তি তোলা নির্বাচন কমিশনের উচিৎ নয়। তাদের কাজ হলো সুষ্ঠু নির্বাচনের বাধাগুলো দূর করা।

২০০৮ সালের পূর্বের সীমানা মেনে নির্বাচনী এলাকার প্রস্তাব করে দলটি।


রাজনীতি এর অন্যান্য খবরসমূহ
পূর্বের সংবাদ
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০