শেখ হাসিনার নির্দেশে বিএনপির রাজনীতি পরিচালিত হয় না:মির্জা ফখরুল - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

শেখ হাসিনার নির্দেশে বিএনপির রাজনীতি পরিচালিত হয় না:মির্জা ফখরুল



(খবর তরঙ্গ ডটকম)

ঢাকা,০৩ ডিসেম্বর (খবর তরঙ্গ ডটকম)-বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে বিএনপির রাজনীতি পরিচালিত হয় না। উনি উনার রাজনীতি করেন, আমরা আমাদের।’মৌলভীবাজারের সমাবেশে জামায়াতের সঙ্গ ছাড়তে প্রধানমন্ত্রীর আহ্বানের জবাবে সোমবার দুপুরে নয়াপল্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।মির্জা ফখরুল প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘আমরা কি প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে রাজনীতি করি? আমরা আমাদের রাজনীতি করি। কার সাথে থাকব; আর কার সাথে থাকব না- উনি নির্ধারণ করার কে?’এরআগে নয়াপল্টন বিএনপির কার্যালয়ে আগামী ৯ ডিসেম্বর অবরোধসহ ঘোষিত কর্মসূচি সফলে ১৮ দলীয় জোটের মহাসচিব পর্যায়ের এক যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভাশেষে সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব অভিযোগ করেন, ‘রাজনৈতিক হীন উদ্দেশ্য চরিতার্থে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জামায়াতের সমাবেশ নিয়ে মিথ্যাচার করেছেন।’

তিনি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে ইঙ্গিত করে বলেন, ‘জামায়াত সমাবেশের জন্য ২৯ নভেম্বর অনুমতি চাইলেও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তা অস্বীকার করে জাতির সাথে মিথ্যাচার করেছেন। আসলে সমাবেশ বানচালেই তিনি এ মিথ্যাচার করেছেন, যা সংবিধান লঙ্ঘন।’

মির্জা ফখরুল জামায়াতকে তার সব গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন করার জন্যই তত্ত্বাবধায়ক বিধান বাতিল করা হয়েছে। এটা বাতিলের পর থেকে তা সংবিধানে পুনর্বহালের দাবিতে আমরা নিয়ামতান্ত্রিক আন্দোলন করে আসছি। কিন্তু সরকার তা না করে দেশকে সংঘাতের দিকে ঠেলে দিচ্ছে।

সরকারকে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি মেনে নিতেও আহ্বান জানান বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব।

পল্লবীতে বিএনপির কার্যালয় উদ্বোধন অনুষ্ঠানের মঞ্চ সরকার দলীয় ক্যাডাররা ভেঙে দিয়েছে অভিযোগ করে তিনি আরো বলেন, ‘আমরা সরকারের কাছে জানতে চাই- বাংলাদেশের কোন আইনে বলা হয়েছে সভা-সমাবেশ করা যাবে না?’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এ দেশের মানুষের ভোট ও ভাতের অধিকার আদায়ের জন্যই ডিসেম্বর মাসে আমাদের আন্দোলন-কর্মসূচি দেয়া হয়েছে। ডিসেম্বরই হলো আন্দোলন-সংগ্রামের মাস।’

প্রধানমন্ত্রীকে ইঙ্গিত করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘তিনি (প্রধানমন্ত্রী) হয়তো ভুলে গেছেন- ’৯৬ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবিতে এই ডিসেম্বর মাসেই হরতালসহ কঠোর কর্মসূচি দেয়া হয়েছিল।’

সংবাদ সম্মেলনে জামায়াতের কর্মপরিষদ সদস্য ডা. আব্দুল্লাহ মো. তাহের বলেন, ‘আজকের সমাবেশের জন্য ঢাকাতে যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করেছি। কিন্তু স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এ নিয়ে মিথ্যাচার করেছেন।’

এরপর তিনি সমাবেশ করতে না দিলে আগামীকাল মঙ্গলবার সারা দেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল পালন করা হবে বলেও জানান।

বিএনপি জামায়াতের এই হরতালে সমর্থন দিবে কিনা জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘যথাসময় এ ব্যাপারে আমাদের প্রতিক্রিয়া জানানো হবে।’

সংবাদ আরো উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া, ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব আব্দুল লতিফ নেজামী, এলডিপির মহাসচিব রেদওয়ান আহমেদ, বিজেপির মহাসচিব শামীম-আল মামুন প্রমুখ।


রাজনীতি এর অন্যান্য খবরসমূহ
পূর্বের সংবাদ