ক্ষমতাসীনদের গায়ে ‘কালাজ্বর’ দেখা দিয়েছে: তরিকুল ইসলাম

ঢাকা, ১২ ডিসেম্বর (খবর তরঙ্গ ডটকম)-বিরোধী দলীয় নেতাকে ‘গ্রেপ্তারের হুমকি’ না দিয়ে ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের ‘জনগণের কারফিউ’ দেখার জন্য তৈরি থাকতে বলেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম।বুধবার সকালে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে এই বিএনপি নেতা বলেন, সরকারের ‘সীমাহীন দুর্নীতি, হানাহানি ও দুঃশাসন’ থেকে জনগণকে ‘পরিত্রাণ দিতে’ বিরোধী দলীয় নেতা ‘গৌরবময় প্রতিবাদী ভূমিকা’ পালন করছেন বলেই ক্ষমতাসীনদের গায়ে ‘কালাজ্বর’ দেখা দিয়েছে। এ জন্যই তারা খালেদা জিয়াকে ‘গ্রেপ্তারের হুমকি’ দিচ্ছে।
, “সরকার ও তাদের ভূঁইফোড় নেতাদের বলতে চাই, রাজপথ অবরোধ দেখেছেন, মন্ত্রী-নেতাদের বাসায় সংগ্রামী জনগণ কীভাবে অবরোধ করে তা এবার দেখবেন। তাই দেশনেত্রীকে গ্রেপ্তারের ঘোষণা বাদ দিয়ে আত্মরক্ষার কথা ভাবুন। জনতার দরবারে বিচারের মুখোমুখি হওয়ার প্রস্তুতি নিন।”অবরোধে সহিংসতার মামলায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে গ্রেপ্তার প্রসঙ্গে মঙ্গলবার এক হরতালবিরোধী সমাবেশে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, নাশকতার সঙ্গে যদি খালেদা জিয়াও জড়িত থাকেন- তারও বিচার করবে সরকার।

এর জবাবে তরিকুল ইসলাম নয়া পল্টনের বিএনপি কার্যালয়ে সংবাদ ব্রিফিংয়ে বলেন, “আমি সরকারকে জানিয়ে দিতে চাই, জনগণের পক্ষ থেকে কারফিউ জারি করা হবে- এই নতুন গজিয়ে ওঠা হুঙ্কার সর্বস্ব নেতাদের খুঁজে বের করা হবে। যারা অপকর্ম ও খুনের সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে।”

“এতে কোনো লাভ হবে না। আমি দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে বলছি- আপনাদের বিদায়ের সাইরেন বাজছে, এখনই সাবধান হোন। নইলে মারাত্মক পরিণতি অনিবার্য রূপ নেবে।”

অন্যদের মধ্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আর এ গনি, খন্দকার মোশাররফ হোসেন, এম কে আনোয়ার, রফিকুল ইসলাম মিয়া, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, দলের সহসভাপতি সাদেক হোসেন খোকা, আবদুল্লাহ আল নোমান, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ওসমান ফারুক, রুহুল আলম চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব বরকত উল্লাহ বুলু, রুহুল কবির রিজভীসহ অঙ্গসংগঠনের নেতারা সংবাদ ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।