বিএনপিকে আমু: জামায়াতকে ছাড়লে ঐক্য হতে পারে

ঢাকা, ২১ ডিসেম্বর (খবর তরঙ্গ ডটকম)- আওয়ামী লীগর উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আমির হোসেন আমু  বিএনপিকে উদ্দেশ্য বলেন সাম্প্রদায়িক রাজনৈতিক দলগুলোকে পরিত্যাগ করুন তাহলে ঐক্য হতে পারে। শুক্রবার সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে সার্ক কালচারাল সোসাইটি আয়োজিত ‘সাম্প্রদায়িকতা ও অপসংস্কৃতির বিরুদ্ধে গড়ে তুলি ঐক্য’ শীর্ষক বিজয়োৎসব অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন। আমু বলেন, সম্প্রদায়িকতা গণতন্ত্র ও মানবতার শত্রু। কায়েমি স্বার্থ হাসিলের জন্য সম্প্রদায়িকতার সৃষ্টি হয়েছে।

অনুষ্ঠানে আকবর আলী খানের ঐক্যের আহ্বান প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যারা সম্প্রদায়িকতার সঙ্গ ত্যাগ করতে পারে না তাদের সাথে কিসের ঐক্য। বিরোধী দলীয় নেত্রী সাম্প্রায়িকতা ত্যাগ করলে তাদের সাথে ঐক্য করা যেতে পারে।

আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ এ নেতা বলেন, যখন যুদ্ধাপরাধের বিচারের দাবিতে সারাদেশের মানুষ সোচ্চার, তখন তাদের সাথে কিসের ঐক্য। যারা একাত্তরে হত্যা, গণহত্যা ও ধর্ষণের মতো জঘন্যতম কাণ্ড ঘটিয়েছে তাদেরকে সাথে নিয়ে কোনো ঐক্য নয়।

তিনি বলেন, ‘যুদ্ধাপরাধের বিচার শুরু হলে কিছু লোক দ্রুত রায় পাওয়ার জন্য পাগল হয়ে গেছে। কিন্তু এর আগে তাদের কোনো কথা শুনতে পাওয়া যায়নি। আমরা আইনের শাসনে বিশ্বাসী। আন্তর্জাতিক মান বজায় রেখে এ বিচার চলছে এবং সম্পন্ন হবে।’

এ সময় আমু বলেন, বিদেশি চ্যানেলগুলো বন্ধ করে দেয়া উচিত। কারণ এসব চ্যানেলের কারণে অপসংস্কৃতি সৃষ্টি হচ্ছে। দেশের তরুণ-তরুণিরা বিপদগামী হচ্ছে।

গণতন্ত্র হারিয়ে ফেলতে বসেছি: আকবর আলি
অনুষ্ঠানে তত্ত্ববধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ড. আকবর আলি খান বলেন, ‘ডিসেম্বর মাস বিজয়ের মাস। এ মাস আসলেই হিসাব মিলিয়ে দেখি কী পেয়েছি আর কী পাইনি। তবে স্বাধীনতার ৪১ বছরে আমরা অনেক অসম্ভবকে সম্ভব করেছি, আবার সম্ভবকে অসম্ভব করে ফেলেছি।’

‘আমরা অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি অর্জন করেছি। শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাতে বেশ উন্নতি ঘটেছে। জিডিপি বেড়েছে দুই গুণের বেশি। কিন্তু গণতন্ত্রকে হারিয়ে ফেলতে বসেছি’ যোগ করেন তিনি।

সাবেক এই উপদেষ্টা বলেন, ‘আমরা নিজেদেরকে বিভক্ত করে ফেলছি যার দৃষ্টান্ত বিশ্বে খুবই কম। রাজনীতির মাধ্যমে দেশকে সংঘাতময় রাষ্ট্রে পরিণত করতে যাচ্ছি।

‘দেশে গণতন্ত্রের খোলস আছে, কিন্তু গণন্ত্রের আত্মা নাই। গণতন্ত্র নিয়ে আমরা খুবই উদ্বিগ্ন’ যোগ করেন তিনি।

আকবর আলি বলেন, ‘একটি শক্তিশালী রাষ্ট্র গঠনে আমাদেরকে রাজনৈতিক সংস্কৃতি পরিবর্তন করার মাধ্যমে গণতন্ত্রকে সুসংহত করতে হবে। আমাদের মূল্যবোধকে উজ্জীবিত করতে পারলেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে।’

অনুষ্ঠানে সাবেক সংসদ সদস্য আবু হোসেন বাবলার সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- দৈনিক ভোরের ডাকের সম্পাদক কেএম বেলায়াত হোসেন প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।