নেতাদের মুক্তি দাবিতে রাজধানীতে শিবিরের বিক্ষোভ : আটক ৯ - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

নেতাদের মুক্তি দাবিতে রাজধানীতে শিবিরের বিক্ষোভ : আটক ৯



(খবর তরঙ্গ ডটকম)

ঢাকা, ডিসেম্বর ২৪(খবর তরঙ্গ ডটকম)- বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় মাদরাসা কার্যক্রম সম্পাদক হাফেজ শাহীনুর রহমান, ঢাকা মহানগর পশ্চিম সভাপতি সাজ্জাদ হোসাইনসহ গত তিন দিনে প্রায় অর্ধশত নেতাকর্মী গ্রেফতার ও নির্যাতনের প্রতিবাদে গতকাল রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে ছাত্রশিবির। সকাল সাড়ে ১০টায় ফকিরেরপুল মোড় থেকে মিছিলটি শুরু হয়ে দৈনিক বাংলায় এসে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়। মিছিলের এক পর্যায়ে পুলিশ শিবিরকর্মীদের ধাওয়া ও অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে ৯ নেতাকর্মীকে আটক করে পুলিশ। এদিকে শিবির নেতাদের মুক্তির দাবি জানিয়েছেন জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা রফিকুল ইসলাম।
শিবিরের কেন্দ্রীয় সাহিত্য সম্পাদক নিজামুল হক নাঈমের নেতৃত্বে মিছিলে আরও অংশ নেন ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক আবু সালেহ মো. ইয়াহইয়া, এইচআরডি সম্পাদক মুহাম্মদ ইয়াছিন আরাফাত, ঢাকা মহানগরী পূর্ব সভাপতি এনামুল কবীর ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সভাপতি শাহ মো. মাহফুজুল হক প্রমুখ। সমাবেশে ছাত্রশিবির নেতারা বলেন, ছাত্রশিবিরকে নেতৃত্বশূন্য করতেই একের পর এক নেতাকে গ্রেফতার করা হচ্ছে। গত তিন দিনে রাজধানীতে প্রায় অর্ধশত নেতাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সরকার শিবির নেতাদের গ্রেফতার করে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন চালাচ্ছে। নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করলেও যথানিয়মে থানা হেফাজতে দেয়া হচ্ছে না, আবার আদালতেও তোলা হচ্ছে না। আইনের শাসনের প্রতি বুড়ো আঙুল প্রদর্শন করে সরকার শিবির নেতাকর্মীদের ডিবি কার্যালয়ে বা অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে চরম নির্যাতন চালাচ্ছে। ছাত্রলীগ-যুবলীগ দিয়ে পুলিশ বাহিনীকে সাজিয়ে সরকার একদল রক্ষীবাহিনী তৈরি করেছে, যারা শুধু শিবির নেতাকর্মীদের গ্রেফতার ও নির্যাতনের কাজেই নিয়োজিত। সরকার যদি অবিলম্বে নির্যাতন বন্ধ না করে তাহলে হরতালসহ সারাদেশে কঠোর আন্দোলনের কর্মসূচি ঘোষণা দেয়া হবে। রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসের মোকাবেলায় দেশব্যাপী তীব্র প্রতিরোধ আন্দোলন গড়ে তোলারও হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন তারা।
মুক্তি দাবিতে জামায়াতের বিবৃতি : এদিকে ছাত্র শিবিরের ঢাকা মহানগরী পশ্চিমের সভাপতি সাজ্জাদ হোসাইন ও সেক্রেটারি গোলাম কিবরিয়া এবং রাজধানী ঢাকার ১২টি থানার ২৭ জন নেতাসহ গত তিন দিনে ইসলামী ছাত্র শিবিরের ৫০ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান।
এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, সরকার বিরোধী দলের আন্দোলন দমন করার জন্যই বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র শিবিরের নেতাকর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে তাদের ওপর অত্যাচার-নির্যাতন চালাচ্ছে। ইসলামী ছাত্র শিবিরের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করে তাদের ওপর অত্যাচার ও নির্যাতন চালানোর মধ্যে দিয়ে সরকারের একদলীয় ফ্যাসিবাদী চরিত্রই প্রকাশিত হয়েছে। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলা করার পরিবর্তে সরকার জুলুম-নির্যাতন ও নিপীড়নের পথ বেছে নিয়েছে। ফ্যাসিবাদী কায়দায় বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ওপর অত্যাচার-নির্যাতন চালিয়ে অতীতে যেমন কোনো সরকার রেহাই পায়নি, তেমনি আওয়ামী মহাজোট সরকারও রেহাই পাবে না। জুলুম-নির্যাতনের প্রতিক্রিয়ায় আন্দোলন আরও বেগবান হবে ইনশাআল্লাহ। গণআন্দোলনের মুখেই এ স্বৈরাচারী সরকারকে বিদায় নিতে বাধ্য করা হবে। শিবিরের গ্রেফতারকৃত সব নেতাকর্মীকে অবিলম্বে মুক্তি প্রদান করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।


রাজনীতি এর অন্যান্য খবরসমূহ
পূর্বের সংবাদ