আগে নির্দলীয় সরকারের দাবি মেনে নেয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিতে হবে,পরে সংলাপ

নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ঘোষণা দিলে তবেই সরকারের সঙ্গে সংলাপে বসতে আগ্রহী প্রধান বিরোধী দল বিএনপি। এ বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের বক্তব্যের জবাবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম মঙ্গলবার সাংবাদিকদের বলেন, “আমরাও সরকারের সঙ্গে সংলাপে বসতে আগ্রহী। সংলাপ চাই। সব সময় সংলাপ চেয়ে আসছি। তবে আগে সরকারকে নির্দলীয় সরকারের দাবি মেনে নেয়ার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিতে হবে।” সোমবার সচিবালয়ে এক মতবিনিময় সভার শুরুতে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বিএনপির সঙ্গে আলোচনার আগ্রহের কথা জানান।

তিনি বলেন, “সমাধানের একমাত্র পথ আলোচনা, বিকল্প কোনো পথ নেই। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আলোচনা যেন শুরু হয়। যতো তাড়াতাড়ি এর সুরাহা হয়, গণতন্ত্র ও জাতির জন্য তা ততো মঙ্গলজনক।”

বিএনপির সাড়া পেলে আগামী নির্বাচন নিয়ে শিগগিরই আলোচনায় বসতে চান বলেও আশরাফ জানান।

নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকার পদ্ধতি পুনর্বহালে সরকারের সঙ্গে আলোচনা করতে বিরোধীদলীয় নেতা খালেদা জিয়া এর আগে তাদের পক্ষ থেকে আগ্রহ দেখিয়েছিলেন।

এ বিষয়ে তরিকুল ইসলাম বলেন, “নির্দলীয় সরকারের ঘোষণা দিলে সংসদের ভেতরে-বাইরে যে কোনো স্থানে সংলাপে বসতে আমাদের কোনো আপত্তি নেই।”

আশরাফ সোমবার বলেছিলেন, নির্বাচন নিয়ে বিরোধী দলের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে বসা না হলেও সব দলের মধ্যে নিয়মিত ‘কথা হয়’।

“আলোচনা যে চলছে না, তা-ও না। আলোচনা রাজনীতির একটি চলমান প্রক্রিয়া। রাজনৈতিক দলের সাথে রাজনৈতিক দলের সব সময় কথা হয়, শুধু আনুষ্ঠানিকভাবে বসা হয়নি। আশা করি, অচিরেই সাড়া পাব, আর সাড়া পেলে আনুষ্ঠানিক আলোচনায় বসব।”

এ বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে সৈয়দ আশরাফের ওই বক্তব্য নাকচ করে দেন তরিকুল।

তিনি বলেন, “এটা জনগণকে বিভ্রান্ত করার জন্য তিনি বলেছেন। এটি সঠিক নয়। আনুষ্ঠানিক কিংবা ভেতরে ভেতরে কোনো সংলাপ হয়ে থাকলে স্থায়ী কমিটির সদস্য হিসেবে আমি অন্তত জানতাম।”

সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনীর মাধ্যমে তত্ত্বাবধায়ক সরকার পদ্ধতি বিলুপ্ত হওয়ায় আগামী দশম সংসদ নির্বাচনের সময় আগের নির্বাচিত দলই ক্ষমতায় থাকবে।

দলীয় সরকারের অধীনে এমন নির্বাচন নিরপেক্ষ হবে না দাবি করে নির্দলীয় সরকার পদ্ধতি ফিরিয়ে আনার দাবিতে আন্দোলন করছে বিরোধী দল। দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনে না যাওয়ার হুমকিও তারা দিয়েছি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।