রাজধানীতে ছাত্রলীগের নৈরাজ্যের প্রতিবাদে শিবিরের মিছিলে পুলিশের হামলা,আহত ১৫,আটক ১০

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ছাত্রসংগঠন ছাত্রলীগের অব্যাহত সন্ত্রাস ও নির্যাতনের প্রতিবাদে রাজধানীর আরামবাগ ও শ্যামলীতে ছাত্রশিবির বিক্ষোভ মিছিল করেছে।এ সময় পুলিশের সঙ্গে শিবির নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষ হয়। এতে কমপক্ষে ১৫ জন আহত এবং ১০ জনকে পুলিশ আটক করেছে।
বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে কেন্দ্রীয় সাহিত্য সম্পাদক মো. ইয়াসিন আরাফাতের নেতৃত্বে মতিঝিলে একটি মিছিল বের করে শিবির। মিছিলটি মতিঝিল থেকে আরামবাগের দিকে এগোতে থাকলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়।
shibir.5shibir.4shibir.3   shibir.2
এ সময় শিবির নেতা-কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়। পুলিশ শিবির নেতা-কর্মীদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার শেল ছোড়ে। এতে অন্তত ১৫ জন আহত হয়। এ সময় শিবির কর্মীরা বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুর করে।

ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ সংগঠনটির ১০ জনকে আটক করেছে বলে দাবি করেছে শিবির।

পরে আরামবাগেই এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে শিবিরের বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচি শেষ হয়। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন- কেন্দ্রীয় ছাত্রকল্যাণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, বিতর্ক সম্পাদক মাসুদুল ইসলাম বুলবুল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি শাহিন খাঁন, পূর্বের সভাপতি রাশেদুল হাসান রানা প্রমুখ।

এছাড়া রাজধানীর শ্যামলীতে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কেন্দ্রীয় অফিস সম্পাদক মো. আতিকুর রহমানের নেতৃত্বে আরেকটি মিছিল বের করে শিবির। শ্যামলী বাসস্ট্যান্ড থেকে মিছিলটি কলেজ গেট মোড়ে এলে পুলিশ বাধা দেয়।

পরে সেখানেই সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে শিবির। এতে শিবিরের কেন্দ্রীয় বায়তুল মাল সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আলমগীর হোসেন, মহানগর উত্তরের সভাপতি আহমদ সালমান, মহানগর পশ্চিমের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. মারুফ হোসেন প্রমুখ বক্তৃতা করেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।