ঢাবিতে ছাত্রদল ও শিবির সন্দেহে তিনজনকে মারধর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদল সন্দেহে দু’জন এবং শিবির সন্দেহে একজনকে মারধর করেছে ছাত্রলীগ কর্মীরা। বুধবার বেলা ১১টা থেকে ১২টার মধ্যে ক্যাম্পাসের পৃথক পৃথক স্থানে এসব মারধরের ঘটনা ঘটে।
এদিন বেলা ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের সামনে আরবি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী আবদুল্লাহ-আল ফারুককে শিবির কর্মী সন্দেহে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা মারধর শুরু করে। এ সময় ছাত্রলীগ কর্মীরা ক্রিকেট স্ট্যাম্প দিয়ে তার পায়ে আঘাত করে বলে প্রত্যদর্শীরা জানান। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর তাকে উদ্ধারের জন্য গেলে তার সামনেও আরেক দফা মারধর করা হয়। পরে প্রক্টর আমজাদ আলি তাকে শাহবাগ থানায় হস্তান্তর করেন।
এর আগে বেলা ১১টার দিকে এসএম হলের মার্স্টাসের শিক্ষার্থী আবুল বাশারকে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে মারধর করে ছাত্রলীগ কর্মীরা। পরে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।
বেলা ১১টা ৫ মিনিটের দিকে জাতীয়তাবাদী দেশ বাঁচাও মানুষ আন্দোলনের সভাপতি কে এস রকিবুল ইসলাম রিপনকে বাংলা একাডেমীর সামনের রাস্তায় মারধর করেন ছাত্রলীগ কর্মীরা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।