বগুড়ায় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের হামলায় জামায়াত-শিবিরের ২ জন নিহত (ভিডিও) - খবর তরঙ্গ
শিরোনাম :

বগুড়ায় ছাত্রলীগ ও যুবলীগের হামলায় জামায়াত-শিবিরের ২ জন নিহত (ভিডিও)



বগুড়া, (খবর তরঙ্গ ডটকম)

বগুড়ায় হরতাল চলাকালে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের নেতা-কর্মীদের সঙ্গে পৃথক সংঘর্ষে শিবির নেতাসহ দুজন নিহত হয়েছেন। এরা হলেন- সরকারি আজিজুল হক কলেজের শিবির সভাপতি রুহানি এবং ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান। তবে স্থানীয় জামায়াত মিজানুরকে তাদের কর্মী বলে দাবি করেছে। প্রত্যক্ষদর্শী জানান, বগুড়া সদরে দুপুর ১টায় জামায়াত-শিবিরের পিকেটিংয়ের সময় হরতালবিরোধীদের সঙ্গে তাদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় একজন ব্যবসায়ী রাম দার কোপে গুরুতর আহত হলে তাকে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বগুড়া শহর জামায়াতের সেক্রেটারি মাজেদুর রহমান জুয়েল নিহত ব্যবসায়ী মিজানুরকে তাদের কর্মী দাবি করে বলেন, ‘হরতাল চলাকালে শহরের সাবগ্রাম এলাকায় জামায়াত-শিবির নেতা-কর্মীরা পিকেটিং করে। এ সময় সরকারি দলের এক নেতাকে মোটর সাইকেল থেকে নামিয়ে দিলে তারা সংঘবদ্ধ হয়ে জামায়াত নেতা-কর্মীদের উপর হামলা করে।’

তিনি বলেন, ‘এ সময় জামায়াত-শিবির নেতা-কর্মীরাও তাদের পাল্টা ধাওয়া করে। এ সময় জামায়াত কর্মী পোল্টি ফিড ব্যবসায়ী মিজানুর রহমানকে (৩০) রাম দা দিয়ে উপযুপুরি কুপিয়ে ক্ষমতাসীনরা আহত করে। পরে তাকে শহীদ জিয়াউর রহমান হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর মারা যান।’

মাজেদুর রহমান দাবি করেন, ‘নিহত মিজানুর রহমান এক জামায়াতকর্মী। তার বাড়ি কুমিল্লা জেলায়। তিনি ব্যবসায়িক কাজে বগুড়ায় এসেছিলেন। সাবগ্রাম এলাকায় জামায়াতের মিছিল ও পিকেটিং অংশগ্রহণ করেছিলেন।’

এছাড়া ফুলবাড়ি এলাকায় আহত ছাত্রশিবিরে আজিজুল হক কলেজ শাখার সভাপতি রুহানি শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

বগুড়া সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক সৈয়দ সহিদ আলম জানান, ‘পিকেটিংয়ের ঘটনায় এক ব্যবসায়ী ছুরিকাঘাতের পর মারা যান। তবে তার পরিচয় এখনো জানা যায়নি।’

 




এ সম্পর্কিত আরো খবর

রাজনীতি এর অন্যান্য খবরসমূহ
পূর্বের সংবাদ