সিলেটে জামায়াতে হরতালে আগের দিনেই অর্ধশত ককটেল বিস্ফোরণ

সোমবার বিকেলে শান্তিপূর্ণভাবে বিক্ষোভ মিছিল শেষ করলেও সন্ধ্যার সঙ্গে সঙ্গে হরতালের সমর্থনে নগরীর বন্দরবাজার, সোবহানীঘাট, সুবিদবাজার, চৌকিদেখি, দক্ষিণ সুরমা, শাহপরাণ গেট ও মেজরটিলা এলাকায় ঝটিকা মিছিল ও ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায় তারা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সন্ধ্যায় আলাদা আলাদা গ্রুপে জামায়াত-শিবির কর্মীরা মিছিল বের করে। মিছিলগুলো থেকে প্রায় অর্ধশত ককটেল বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।

পাঠান টুলা ও মদিনা মার্কেট এলাকায় সিলেট মহানগর শিবিরের সাবেক সভাপতি মাহমুদুর রহমান দিলওয়ারের নেতৃত্বে শতাধিক জামায়াত-শিবির কর্মী ঝটিকা মিছিল বের করে। মিছিল শেষ করার পথে পরপর কয়েকটি ককটেল ফোটানো হয়। এসময় আতঙ্কে কিছু সময় সড়কটিতে যান চলাচল বিঘ্নিত হয়।

এদিকে, হরতাল হরতাল স্লোগান দিয়ে দক্ষিণ সুরমার হুমায়ুন রশীদ চত্বর এলাকায় টায়ারে আগুন দিয়ে পালিয়ে যায় একদল লোক। স্থানীয়রা জানিয়েছে, তারা জামায়াত-শিবির কর্মী।

অন্যদিকে, নয়াসড়ক মোড় নতুন মেডিকেল রোড এলাকায়ও পরপর ১০/১২ ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায় জামায়াত-শিবির।

যোগাযোগ করা হলে বিভিন্ন স্থানে হরতালের সমর্থনে মিছিল বের করার কথা স্বীকার করেন জামায়াতের সিলেট মহানগরের মুখপাত্র ফখরুল ইসলাম।

তিনি জানান, থানাভিত্তিক তারা মিছিল করে হরতাল পালনের আহ্বান জানান।

এ ব্যাপারে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার অমূল্য ভূষণ বড়ুয়া সংবাদ মধ্যামকে বলেন, “বিভিন্ন স্থানে অনুমতি ছাড়া জামায়াত-শিবির মিছিল করেছে বলে শোনা যাচ্ছে। তবে পুলিশ কঠোর ভূমিকায় রয়েছে। যে কোনো নাশকতা সামলাতে প্রস্তুত রয়েছে পুলিশ।”

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।