“ট্র্যাইবুনালে কাদের মোল্লার প্রহসনের রায়ের” বিরুদ্ধে লাকসামে বিক্ষোভ মিছিল

কুমিল্লার লাকসামে জামায়াতে ইসলামী ও ছাত্রশিবির লাকসাম পৌরসভা ও উপজেলা শাখার উদ্যোগে  বৃহস্পতিবার বিকেলে লাকসাম জংশন রোড থেকে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসাবে ট্র্যাইবুনালে কাদের মোল্লার প্রহসনের রায় ও চট্টগ্রামে পুলিশ হাতে নিহত ৪ জামায়াত-শিবির নেতা-কর্মী হত্যার প্রতিবাদে এবং অবৈধ ট্রাইব্র্যুনাল ভেঙ্গে দেয়া ও প্রহসনের বিচার বন্ধের দাবিতে লাকসাম উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারী হাফেজ মাওলানা জহিরুল ইসলাম ও লাকসাম শহর শিবিরের সভাপতি মু. শাহাদাত হোসেনের নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।
মিছিলটি লাকসামের গুরুত্বপূর্ন সড়ক প্রদক্ষিন শেষে ষ্টেশন চত্ত্বরে একটি সমাবেশে মিলিত হয়।

উক্ত সমাবেশে বক্তব্যে রাখেন লাকসাম উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারী হাফেজ মাওলানা জহিরুল ইসলাম বক্তব্যে তিনি সরকারের উদ্দেশ্যে বলেন , ‘জামায়াত আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। আমরা আইন হাতে তুলে নিইনি। আমাদের উপর যখন আঘাত আসে তখন তা প্রতিহত করা চেষ্টা করেছি, কিন্তু আওয়ামী পুলিশ দিয়ে সরকার আমাদের নিরপরাধ নেতাকর্মীদেরকে হত্যা করছে। এবং সম্পূর্ন অন্যায় ভাবে জামায়াতের নিরপরাধ নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে তথাকথিত ট্রাইব্যুনালে প্রহসনের যে রায় দেয়া হয়েছে তা দেশবাসী মানবে না’। সরকারের কঠোর সমালোচনা করে তিনি বলেন সরকার দূর্নিতি সহ সকল েেত্র ব্যর্থতার প্রমান দিচ্ছে, সরকার বিরোধীদলের নেতা কর্মীদের উপর অমানবিক নির্যাতন চালিয়ে দেশে স্বৈরশাসন কায়েম করতে চায়, তিনি অবিলম্বে অবৈধ ট্রাইবুনাল ভেঙ্গে দিয়ে প্রহসনের বিচার বন্ধ করে নিরপরাধ জামায়াতের শীর্ষ নেতৃবৃন্দের মুক্তির দাবি জানান।

উক্ত সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন- কুমিল্লা জেলা দক্ষিণ জামায়াতের শুরা সদস্য এইচএম নুরুল্লাহ, কুমিল্লা জেলা দক্ষিনের সাবেক সাহিত্য সম্পাদক শহিদুল উল্লাহ,জামায়াত নেতা আহসান উল্লাহ মিয়াজী, উপজেলা পূর্ব সভাপতি ফয়েজুর রহমান, নওয়াব ফয়েজুন্নেছা সরকারি কলেজ সভাপতি আবু সাঈদ, নওয়াব ফয়েজুন্নেছা সরকারি কলেজ শিবিরের সাবেক সভাপতি সাইফুল ইসলাম খোকন, সোহাগ, নোমান, নুরে আলম, আবু বকরসহ জামায়াত ও শিবির নেতা-কর্মী।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।