ব্লগারদের ইসলাম অবমাননা সরকারের মদদে: বিএনপি

প্রধান বিরোধী দল বিএনপি দাবি করে বলেছেন সরকারের প্রচ্ছন্ন মদদ না থাকলে কতিপয় অনলাইন ব্লগার ইসলামবিরোধী মন্তব্য করতে পারতো না ।
মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে আল্লাহ, মুহাম্মদ (সা.) ও ইসলামকে অবমাননারও তীব্র নিন্দা, প্রতিবাদ ও ঘৃণা জানিয়েছে দলটি। বিবৃতিতে বলা হয়, সম্প্রতি অনলাইন ব্লগ ও সামাজিক ওয়েবসাইটে আল্লাহ, মুহাম্মদ (সা.) ও ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে অমর্যাদাকর মন্তব্য করে কতিপয় ব্লগার দেশের সংস্কৃতি, ঐতিহ্য, বিশ্বাস ও ধর্মীয় মূল্যবোধে যে আঘাত হেনেছে, সেটি ইতোমধ্যেই দেশবাসীর গোচরীভূত হয়েছে।

‘কতিপয় অনলাইন ব্লগার মহান আল্লাহ রাব্বুল আ’লামীন, শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.), তাঁর পরিবার ও সাহাবী এবং ইসলাম সম্পর্কে যে কদর্যপূর্ণ, অশ্লীল, করুচিপূর্ণ স্ট্যাটাস ও মন্তব্য করে ইন্টারনেটে পোস্ট করেছে তা কেবল বিকৃত মানসিকতার ব্যক্তিদের পক্ষে সম্ভব’ বিবৃতিতে বলা হয়।

এতে বলা হয়, বাংলাদেশের সংখ্যাগরিষ্ট মানুষ মুসলমান। আল্লাহ রাব্বুল আ’লামীন ও শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.) এর প্রতি তাদের অপরসীম শ্রদ্ধা, ভক্তি ও ভালোবাসা রয়েছে। তারা আল্লাহ ও রাসূলের অবমাননা কখনও মেনে নেয় না।

বিএনপির দাবি, সরকারের নির্দেশে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রকারী সংস্থা-বিটিআরসি ইতোমধ্যে ইউটিউবেসহ অনেকগুলো ব্লগ ও পেইজ বন্ধ করে রেখেছে। অথচ ইসলামের বিরুদ্ধে কুৎসা ও কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য প্রচারকারী সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো এখনও চালু থাকছে। সরকারের প্রচ্ছন্ন মদদ না থাকলে কতিপয় অনলাইন ব্লগার ইসলামবিরোধী মন্তব্য করতে পারতো না।

বিবৃতিতে বলা হয়, সুদুর প্রসারী দুরভিসন্ধি নিয়েই আল্লাহ রাব্বুল আ’লামীন, শেষ নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.), তাঁর পরিবার ও সাহাবী এবং ইসলামের বিরুদ্ধে কুৎসা রটনা করা হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।