সমাবেশে ককটেল বিস্ফোরণ ও পুলিশের গুলির প্রতিবাদে আগামীকাল মঙ্গলবার সারা দেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল

নয়াপল্টনে বিক্ষোভ সমাবেশে ককটেল বিস্ফোরণ ও পুলিশের গুলির প্রতিবাদে আগামীকাল মঙ্গলবার সারা দেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল আহ্বান করেছে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট। বিকেল ৫টার দিকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বক্তৃতা শুরু করার পর পর সমাবেশস্থলে ১০-১২টি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটে। এতে নেতাকর্মীরা ছোটাছুটি শুরু করেন। ছড়িয়ে পড়ে আতঙ্ক।এসময় বিএনপির মহাসচিব ককটেল বিস্ফোরণের মাধ্যমে সমাবেশ পণ্ড করার প্রতিবাদে মঙ্গলবার সারা দেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ঘোষণা দেন।

ককটেল বিস্ফোরণের পর আতঙ্কিত নেতা-কর্মীরা দিগ্বিদিক ছুঁটতে থাকে। ক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীদের একটি অংশ বিএনপি কার্যালয় ও এর আশাপাশের এলাকায় অংবস্থান নিয়ে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। তারা একটি মোটর সাইকেলে আগুন দেয়।

পুলিশ তাদের লক্ষ্য করে গুলিবর্ষণ, টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে। তবে নেতা-কর্মীদের প্রতিরোধের মুখে পুলিশ সামনে এগোতে পারেনি। সেখানে অবস্থান করে নেতা-কর্মীরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করছে।

সমাবেশ ভণ্ডুল করতে সরকার পরিকল্পিতভাবে এই ককটেল হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে ১৮ দল। তবে পুলিশের মতিঝিল জোনের এডিসি মেহেদি হাসান বলেছেন, হরতাল ডাকার জন্যই বিএনপি এই ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।