“জনগণ ও গণতন্ত্রের ওপর আস্থা নেই, তাই সেনাবাহিনীকে উস্কে দিচ্ছেন খালেদা জিয়া : হানিফ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন বিরোধী দলীয় নেতা ও বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বগুড়ায় দেয়া বক্তব্যের সমালোচনা করে বলেছেন, “জনগণ ও গণতন্ত্রের ওপর খালেদা জিয়ার আস্থা নেই। তাই তিনি ক্ষমতায় যেতে বিকল্প পথ খুঁজছেন। তিনি সেনাবাহিনীকে উস্কে দিচ্ছেন।”

সোমবার সকালে বঙ্গবন্ধু এভিনউয়ের আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় হানিফ এ কথা বলেন।

উল্লেখ্য, রোববার বগুড়া সফরকালে এক শোক সমাবেশে বিরোধী দলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া বলেন, “দেশে সাম্প্রতিক সহিংস পরিস্থিতিতে সেনাবাহিনীরও দায়িত্ব-কর্তব্য রয়েছে, যা তাদের পালন করতে হবে। সেনাবাহিনী সময়মত তাদের সে ভূমিকা পালন করবে। আমাদের সেনাবাহিনী বিদেশে শান্তি রক্ষায় কাজ করে। দেশের জন্যও তারা সময়মতো দায়িত্ব পালন করবে।” তার এই বক্তব্য বিভিন্ন মহলে ব্যাপক আলোচিত হয়।

হানিফ বলেন, “দেশের সাধারণ মানুষ তো তা হতে দেবে না। খালেদা জিয়া যে আগুন নিয়ে খেলছেন তাতে কোনোদিন সফল হতে পারবেন না।”

তিনি বলেন, “রোবাবার বগুড়ায় খালেদা জিয়া তার বক্তব্যে মিথ্যাচার করেছেন। দেলু রাজাকারের রায়ের পর যে সহিংসতা শুরু হয়েছিল সেটাকে তিনি গণহত্যার সঙ্গে তুলনা করছেন।”

খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে আওয়ামী লীগের এই প্রভাবশালী নেতা বলেন, “অনেক মিথ্যাচার করেছেন। আর মিথ্যাচার করে লাভ হবে না। তরুণ প্রজন্ম আপনাদের মিথ্যাচার ধরতে পেরেছে।”

হানিফ বলেন, “খালেদা জিয়া পুলিশ বাহিনীকেও হুমকি দিয়েছেন। তিনি তার বক্তব্যে বলেছেন, ‘পুলিশ সাধারণ মানুষকে হত্যা করেছেন। এর পরিণতি ভালো হবে না’ এমন কথা বলেছেন। যে সব সন্ত্রাসী পুলিশকে পিঠিয়ে হত্যা করেছে তাদের বিরুদ্ধে কোনো কথা না বলে তিনি বরং সেই সব সন্ত্রাসীর পক্ষ নিয়েছেন।”

তিনি বলেন, “আমরা সাধারণ মানুষ যারা গণতন্ত্রে বিশ্বাসী তাদের কাছে এটা বোধগম্য নয়, কী জন্যে তিনি সেনাবাহিনীকে আমন্ত্রণ জানালেন। আসলে খালেদা জিয়ার দেশের সাধারণ মানুষের ওপর, দেশের গণতন্ত্রের ওপর কোনো আস্থা নেই। তাই বিকল্প পথ খুঁজছেন। কিন্তু সাধারণ মানুষ তা কোনো দিন মেনে নেবে না। আপনি যে আগুন নিয়ে খেলছেন তা কোনোভাবেই সফল হবে না।”

মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শেখ বজলুর রহমানের সভাপতিত্বে এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ফয়েজ উদ্দিন মিয়া, সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাজী সেলিম, আওলাদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।