ফেনির সোনাগাজীতে বিএনপির মিছিলে বোমা হামলা,আহত ১০

মহান স্বাধীনতা দিবসে ফেনীর সোনাগাজীতে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে বের হওয়া বিএনপির মিছিলে বোমা হামলায় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে। বিএনপির অভিযোগ, পূর্ব পরিকল্পিতভাবে আওয়ামী লীগের অফিস থেকে  এ হামলা চালানো হয়েছে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কয়েক রাউন্ড গুলি ও টিয়ার শেল নিক্ষেপ করে।

 পুলিশ, প্রত্যক্ষদর্শী ও দলীয় সূত্র জানায়, ভোরে উপজেলা বিএনপি ও পৌর বিএনপি পৃথকভাবে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। সকাল আটটার দিকে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও স্থানীয় সংসদ সদস্য মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেনের পক্ষ থেকে সাবেক উপজেলা সভাপতি জয়নাল আবদীন বাবলু ও সাবেক সাধারণ সম্পাদক সামছুদ্দীন খোকনের নেতৃত্বে বিএনপির একাংশ এবং যুবদল-ছাত্রদল স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে পৌর শহরে মিছিল বের করে। উপজেলা আওয়ামী লীগ অফিসের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় মিছিলকে লক্ষ্য করে কয়েকটি ককটেল নিক্ষেপ করা হয়।
এ সময় বিক্ষুদ্ধ বিএনপি নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগ অফিসে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করলে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষ শুরু হয়। এতে মিলন, কুদ্দুস, পিয়াস, আলম, সিরাজ ও জাকিরসহ উভয় পক্ষের আট/দশজন আহত হয়। এ সময় পুরো এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।
উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি জয়নাল আবদীন বাবলু অভিযোগ করেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ফয়েজুল কবিরের লাইসেন্সকৃত পিস্তল বের করে তার গাড়িচালক সবুজ বিএনপির মিছিলকে লক্ষ্য করে চার/পাঁচ রাউন্ড গুলি চালায়।
উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ফয়েজুল কবির অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, “বিএনপির মিছিল থেকে নিজেরাই ককটেল ফাটিয়ে আওয়ামী লীগ অফিসে হামলা চালায়। একপর্যায়ে আওয়ামী লীগকর্মীরা হামলাকারীদের ধাওয়া করে।”
সোনাগাজী মডেল থানার ওসি সুভাষ চন্দ্র পাল জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ দুই রাউন্ড টিয়ার শেল ও ১২রাউন্ড শর্ট গানের গুলি ছোঁড়ে।
এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। পৌর শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।