পুলিশের গুলিতে ৩জন নিহত হওয়ার ঘটনায়, রবিবার চাঁপাইনবাবগঞ্জে হরতাল

শুক্রবার ভোরে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার শ্যামপুরে আসামি ধরতে গিয়ে গ্রামবাসী-পুলিশ সংঘর্ষে পুলিশের গুলিতে ৩ জন নিহত ও গুলিবিদ্ধসহ আহত হয়েছে অর্ধশতাধিক।
নিহতের ঘটনায় রবিবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় হরতাল আহ্বান করা হয়েছে। গুলিতে নিহতরা হলেন- অলিউল্লা (২৩), মতিউর (২৫), রবিউল (২৪)। এরমধ্যে রবিউলের বাড়ি বাবুপুর গ্রামে ও মতিউরের বাড়ি গোপাল নগর গ্রামে।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার ভোর ৩টার দিকে পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবি আসামি ধরতে শ্যামপুর ইউনিয়নে যৌথ অভিযান চালাচ্ছে এমন খবরে গ্রামবাসী সংঘবদ্ধ হয়। পরে তারা যৌথ অভিযান প্রতিহতের ঘোষণা দেয়।

এক পর্যায়ে ভোর ৩টার দিকে পুলিশের সঙ্গে গ্রামবাসী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সকালে এই সংঘর্ষ আরও তীব্র আকার ধারণ করে। গ্রামবাসীকে লক্ষ্য করে পুলিশ গুলি চালালে ঘটনাস্থলেই ২ জন এবং আহতদের হাসপাতালে নেয়ার পথে আরেকজন মারা যান।

এ ঘটনার পর থেকে ওই এলাকায় বিজিবি, র‌্যাব ও অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। নিহতের বাড়িতে স্থানীয়রা ভীড় জমাচ্ছেন। এছাড়া ঘটনার প্রতিবাদে সোনা মসজিদ সড়ক অবরোধ করে রেখেছে স্থানীয়রা।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের এসএসপি সার্কেল মতিউর রহমান খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ‘ভোরে ওই উপজেলার শ্যামপুরে আসমি ধরতে গেলে জামায়াত-শিবির গ্রামবাসীদের নিয়ে পুলিশের ওপর চড়াও হয়।’

তবে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ নিহত হয়েছে কিনা তা তিনি জানেন না বলে জানান।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।