হরতাল আহ্বানকারীরা ক্ষমতাসীনদের গৃহপালিত : খন্দকার মোশাররফ

লংমার্চ ঘিরে শুক্র ও শনিবার হরতাল আহ্বানকারীদের ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের গৃহপালিত শক্তি বলে আখ্যায়িত করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন। তিনি বলেন, ‘তারা ধর্মবিরোধী। ছুটির দিনে শাহবাগীরা হরতাল আহ্বান করে প্রমাণ করেছে- এরা ইসলামের বিপক্ষে।’ তিনি বলেন, হরতালকে কেন্দ্র করে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা হলে এর দায়ভার সরকারকেই বহন করতে। আর এর পরিণাম ভালো হবে না বলেও হুঁশিয়ারি করেন বিএনপির এই কেন্দ্রীয় নেতা।

বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের মুক্তির দাবিতে সম্মিলিত গণতান্ত্রিক জোট আয়োজিত এক মানববন্ধনে মোশাররফ হোসেন এসব কথা বলেন।

সরকারের উদ্দেশ্যে মোশাররফ বলেন, ‘আপনাদের গৃহপালিত শক্তি যে হরতাল আহ্বান করেছে, তা প্রত্যাহার করতে বলুন। লংমার্চে কোনো সহিংসতার ঘটনা ঘটলে এর দায়-দায়িত্ব আপনাদেরই নিতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, সারা দেশের মানুষ যখন সরকারের প্রতিবাদে মুখর, ঠিক তখনই সরকার শাহবাগে নাটক তৈরি করেছিল। আর সেই শাহবাগ থেকেই কিছু ব্লগার ইসলাম ও রাসূলকে (স.) নিয়ে কটূক্তি করেছে।

মোশাররফ হোসেন বলেন, শাহবাগীদের দিয়ে সরকার দেশকে ইসলামের পক্ষ ও বিপক্ষ তৈরি করেছে। হেফাজত ইসলাম রক্ষায় কর্মসূচি দিয়েছে, সরকার তাতে এখন বাধা দেয়ার চেষ্টা করছে।

তিনি বলেন, ব্লগাররা আমাদের ধর্ম নিয়ে যে কটূক্তি করেছে, তা কোনো মুসলমান সহ্য করবে না বরং এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলবে সবাই।

বিএনপির এই জেষ্ঠ্য নেতা পুলিশ বাহিনীর উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আমরা হরতাল দিলে কাউকে রাস্তায় পিকেটিং করতে দেন না। দেখামাত্র গুলি করেন। শুক্র ও শনিবার হরতাল সমর্থক পিকেটারদের আপনারা কী করেন আমরা দেখব।’

সংগঠনের সভাপতি এম এম মেহবুব রহমানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন- যুবদল সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, নির্বাহী কমিটির সদস্য হেলেন জেরিন খান, স্বাধীনতা ফোরামের সভাপতি আবু নাসের মো. রহমতুল্লাহ ও যুবদল নেতা গিয়াদ উদ্দিন মামুন।

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।