জামায়াতের সকাল-সন্ধ্যা হরতাল বিচ্ছিন্ন ভাঙচুর ও সংঘর্ষের মধ্যদিয়ে পালিত হচ্ছে

জামায়াত নেতা মাওলানা একেএম ইউসুফের গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতাল বিচ্ছিন্ন ভাঙচুর ও সংঘর্ষের মধ্যদিয়ে পালিত হচ্ছে। হরতাল সমর্থনে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় মঙ্গলবার সকালে মিছিল বের করে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা। হরতালের সর্মথনে ভোরে মগবাজারে ঝটিকা মিছিল করে রমনা থানা জামায়াত। তবে সেখানেও কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। এ সময় তাদের হরতালের সর্মথনে স্লোগান দিতে দেখা গেছে।

কুমিল্লায় চৌদ্দগ্রামে কাভার্ড ভ্যান ভাংচুর করে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা। বগুড়ার স্টেশন রোডে শিবিরের বিক্ষোভ মিছিল থেকে টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ এবং ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটনো হয়। হরতাল সমর্থনে সিলেটের সোবহানীঘাটে পৃথকভাবে মিছিল বের করে  জামায়াতে ইসলামী ও ছাত্রশিবির। মীরাবাজারে পুলিশের গাড়ি লক্ষ্য করে ককটেল নিক্ষেপ করা হয়। এ সময় দুটি ট্রাক ভাঙচুর করা হয়। সকালে চট্টগ্রামের চকবাজারে হরতাল সমর্থনে ছাত্রশিবির মিছিল ও পিকেটিং করে। এ সময় যানবাহন ভাঙচুর ও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটানো হয়।  হরতাল সমর্থনে বরিশালে মিছিল বের করে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা। এ সময় গাড়ি ভাঙচুর ও ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। জেলার বিভিন্ন স্থানে সড়ক অবরোধ করে জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীরা।

একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে জামায়াতের সিনিয়র নায়েবে আমীর মাওলানা একেএম ইউসুফকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে এবং তার মুক্তির দাবিতে মঙ্গলবার সকাল-সন্ধ্যা এই হরতাল ডাকা হয়।

 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।