বিরোধী দলের নেতার বাড়ি ভারতের শিলিগুড়িতে: শেখ হাসিনা

“বিএনপি যুদ্ধাপরাধীদের নিয়ে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। পেট্রল বোমা দিয়ে পুলিশসহ নিরাপরাধ মানুষ হত্যা করছে। তার দেশের প্রতি, দেশের মানুষের প্রতি কোনো ভালোবাসা নেই। বিরোধী দলের নেতার বাড়ি ভারতের শিলিগুড়িতে , বাংলাদেশে তার জন্ম হয়নি, এজন্য দেশের মানুষের প্রতি তার দরদ নেই,” বলে মন্তব্য করেছেণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শুক্রবার বিকেল সোয়া চারটার দিকে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার কলেজ মাঠে মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের আওয়ামী লীগের প্রার্থী জাতীয় সংসদের হুইপ সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলির নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় এলে খুন ও জঙ্গিবাদ বেড়ে যায়। ২০০১ সালে ক্ষমতায় এসে দেশে খুন, সন্ত্রাস ও নৈরাজ্য চালিয়ে দেশকে অকার্যকার রাষ্ট্রে পরিণত করেছিল।”

শেখ হাসিনা বলেন, “বিএনপি শাসনামলে বিদ্যুতের অবস্থা নাজুক ছিল। আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর ১০ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদন হয়েছে। ৫৪টি বিদ্যুৎ কেন্দ্র করা হয়েছে। আরো ৩৪ হওয়ার পথে। এগুলো দ্রুত উৎপাদনে যাবে।”

লৌহজং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফকির আবদুল হামিদের সভাপতিত্বে জনসভায় বক্তব্য দেন প্রেসিডিয়াম সদস্য নূহ উল আলম লেনিন, জাতীয় সংসদের হুইপ সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, কেন্দ্রীয় কমিটির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. বদিউজ্জামান ডাবলু, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের প্রশাসক মো. মহিউদ্দিন, দশম জাতীয় নির্বাচনে মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস, কেন্দ্রীয় নেতা ফজিলাতুননেছা ইন্দিরা ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান।

পরে প্রধানমন্ত্রী শ্রীনগর স্টেডিয়ামে মুন্সীগঞ্জ-১ আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থী সুকুমার রঞ্জন ঘোষের নির্বাচনী জনসভায় বক্তব্য দেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।