জামায়াত নেতা আবদুস সুবহানের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

একাত্তরে সংঘটিত মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে আটক জামায়াতের নায়েবে আমির আবদুস সুবহানের বিরুদ্ধে  নয়টি অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযোগ গঠন করেছে ট্রাইব্যুনাল।

একই সঙ্গে আগামী ২৮ জানুয়ারি এ মামলায় রাষ্টপক্ষের সূচনা বক্তব্য উপস্থাপনের জন্য দিন ধার্য করেন আদালত।

মঙ্গলবার ট্রাইব্যুনাল-১ এর চেয়ারম্যান বিচারপতি এটিএম ফজলে কবীরের নেতৃত্বে তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল এ আদেশ দেন।

এ ছাড়া পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত এ মামলায় প্রত্যেক কার্যদিবসে এ মামলার কার্যক্রম চলবে বলেও আদেশে বলা হয়।

এর আগে গত ২৩ অক্টোবর জামায়াত নেতা সুবহানের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি শেষ করে প্রসিকিউশন। এরপর আসামিপক্ষের শুনানির জন্য দিন ধার্য করে দেয় ট্রাইব্যুনাল।

গত ১৯ সেপ্টেম্বর সুবহানের বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ (ফরমাল চার্জ) আমলে নেন ট্রাইব্যুনাল।

এর আগে ১৫ সেপ্টেম্বর সুবহানের বিরুদ্ধে ৮৬ পৃষ্ঠার ওই আনুষ্ঠানিক অভিযোগ ট্রাইব্যুনালে জমা দেন প্রসিকিউশন।

আনুষ্ঠানিক অভিযোগে সাবেক এই সংসদ সদস্যের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদনে গণহত্যা, হত্যা, অপহরণ, আটক, নির্যাতন, লুটপাট, অগ্নিসংযোগ ও ষড়যন্ত্রসহ আট ধরনের নয়টি মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ আনা হয়েছে।

গত বছরের ১৫ এপ্রিল থেকে সুবহানের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করে  গত ১২ সেপ্টেম্বর তদন্ত কাজ সম্পন্ন করেন তদন্ত সংস্থা।  তদন্তের স্বার্থে গত ১ সেপ্টেম্বর সেফহোমে নিয়ে সুবহানকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন তদন্ত সংস্থা।

নয়টি অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত কর্মকর্তা ও জব্দ তালিকার সাক্ষীসহ মোট ৪৩ জনকে সাক্ষী করা হয়েছে সুবহানের বিরুদ্ধে।

গত বছরের ২০ সেপ্টেম্বর সকালে টাঙ্গাইলে বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্ব প্রান্ত থেকে সুবহানকে আটক করে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।