বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলোর সংলাপের মাধ্যমে নিরপেক্ষ নির্বাচনের পথ খোঁজা জরুরি: মজীনা

মঙ্গলবার বিকেলে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠক শেষে গণমাধ্যমের সামনে এক লিখিত বক্তব্যে বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনা  বলেছেন বাংলাদেশের রাজনৈতিক দলগুলোর সংলাপের মাধ্যমে গ্রহণযোগ্য ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের পথ খোঁজা জরুরি।

মজীনা বলেন, “গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ার সঙ্গে সহিংসতা সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। এটা অগ্রহণযোগ্য। থামাতে হবে।”
বেলা তিনটার পর  গুলশানে খালেদা জিয়ার বাসায় যান মার্কিন রাষ্টদূত। দেড় ঘণ্টারও বেশি সময় এ বৈঠক চলে। এ সময় বিএনপির চেয়ারপারসনের দুই উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান ও সাবিহ উদ্দিন আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

মজীনা বলেন, “রাজনৈতিক দলগুলোকে এখনই সংলাপে অংশ নিয়ে বাংলাদেশের জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠানের পথ খোঁজা জরুরি হয়ে পড়েছে। বৈঠকে আমি এর ওপরে গুরুত্ব আরোপ করি।”

মজীনা সম্প্রতি সুপ্রিম কোর্ট, জাতীয় প্রেস ক্লাব ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় যে সহিংসতা ও হামলার ঘটনা হয়েছে এ ব্যাপারে আমেরিকার গভীর উদ্বেগের কথা জানান।

প্রসঙ্গত, মার্চ ফর ডেমোক্রেসি’র কর্মসূচি ঘোষণার পর থেকে খালেদা জিয়ার বাসার সামনে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়, যা এখনো আছে। এরমধ্যে রোববার দুপুরে খালেদা জিয়া কর্মসূচিতে যোগ দিতে বাসা থেকে বের হতে চাইলে পুলিশি বাধায় তিনি বের হতে পারেননি। এরপর থেকে তিনি অবরুদ্ধ আছেন। দেখা করতে দেয়া হয়নি নেতাকর্মীদের। যদিও সোমবার বিকেলে বৃটিশ হাইকমিশনার রবার্ট গিবসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে আসেন। এসময় শমসের মবিন চৌধুরী, রিয়াজ রহমান ও সাবিহ উদ্দিনকে বাসায় ঢুকতে দেয় পুলিশ। তবে সাক্ষাত শেষে বের হওয়ার সময় শমসের মবিন চৌধুরীকে আটক করলেও রাতে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।