সাংবিধানিক পদে থেকে ভারপ্রাপ্ত সিইসি সরাসরি সংবিধান লঙ্ঘন করেছেন: রফিকুল

সাংবিধানিক পদে থেকে ভারপ্রাপ্ত সিইসি বিএনপিকে নিয়ে বক্তব্য দিয়ে তিনি সরাসরি সংবিধান লঙ্ঘন করেছেন বলে দাবি করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া। ‘বিএনপি নাকে খত দিয়ে উপজেলা নির্বাচনে এসেছে’ ভারপ্রাপ্ত সিইসির এমন বক্তব্যের তদন্তে সুপ্রিুম জুডিশিয়াল কাউন্সিল করার দাবি জানান তিনি।

বুধবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী মহিলা দল আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ‘অবৈধ’ চার্জ গঠনের প্রতিবাদে এবং বিএনপির শীর্ষ নেতাদের মুক্তির দাবিতে এ মানববন্ধন করা হয়।

ভারপ্রাপ্ত সিইসি মো. আবদুল মোবারকের সমালোচনা করে ব্যারিস্টার রফিকুল বলেন, “নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব একটি সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন করা। কিন্তু তারা সেটা না করে সরকারের সঙ্গে আঁতাত করে কারচুপির মাধ্যমে উপজেলা নির্বাচন করেছে।”

তিনি বলেন, “প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফা উপজেলা নির্বাচনের ফলাফলে বিএনপি এগিয়ে থাকলেও পরবর্তী দুই দফায় ঘোষণা দিয়ে কেন্দ্র দখল করে আওয়ামী লীগ জয়ী হয়েছে। আমার প্রশ্ন, এক মাসের মধ্যে আওয়ামী লীগের জনপ্রিয়তা এত বেড়ে গেল কিভাবে?”

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলায় চার্জ গঠনের সমালোচনা করে খালেদার অন্যতম এই আইনজীবী বলেন, “আইনের নির্দিষ্ট প্রক্রিয়া অনুসরণ না করে অন্যায়ভাবে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করা হয়েছে। এটা অবৈধ। তাকে (খালেদা) রাজনৈতিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য এটা দেয়া হয়েছে।”

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে চার্জ গঠনের দিন বিচারপতিকে বিএনপির আইনজীবীরা হামলার চেষ্টা করেছিল তাই তিনি ‘এজলাস থেকে পালিয়ে গেছেন’ আইনমন্ত্রীর এমন বক্তব্যের সমালোচনা করেন খালেদার আইনজীবী। তিনি বলেন, “ওই দিন এজলাসের মধ্যে সশস্ত্র অবস্থায় অনেক পুলিশ সদস্য ছিলেন। আইনজীবীরা হামলা করলে পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতো। তার (আইনমন্ত্রী) এই বক্তব্য প্রমাণ করে চার্জ গঠনে সরকার ও আইনমন্ত্রীর হাত রয়েছে।”

সংগঠনের সভাপতি নূরে আরা সাফার সভাপতিত্বে এতে আরো বক্তব্য দেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।