বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী গ্রেফতার

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরীকে বনানী ডিওএইচএস মসজিদ রোডের ৯২/এ বাসা থেকে  আটক করেছে পুলিশ।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (গোয়েন্দা শাখা) উপকমিশনার কৃষ্ণপদ রায় বলেন, “শমসের মবিন চৌধুরীকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা দপ্তরে আনা হয়েছে।” এছাড়া বিএনপির আরও কয়েকজন নেতার বাসায় ডিবি পুলিশ হানা দিয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

রাত ১১টা ২০ মিনিটে শমসের মবিন চৌধুরীর মোবাইলে কল দেয়া হলে তিনি বলেন, কি বলবেন, তাড়াতাড়ি বলেন, আমাকে ডিবি পুলিশ ধরে নিয়ে যাচ্ছে। এরপর তিনি লাইন কেটে দেন। তখন পুলিশের ওয়াকিটকির আওয়াজ শোনা যাচ্ছিল। পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, রাত সাড়ে ১০টার দিকে সাদা পোশাকে ডিবি পুলিশের একটি দল শমসের মবিনের ডিওএইচএসের বাসা ঘিরে ফেলে। তারা বাসার ভেতরে প্রবেশ করে বলেন, স্যার আপনাকে আমাদের সঙ্গে যেতে হবে। এরপর শমসের মবিন চৌধুরী তাদের কাছে কয়েক মিনিট সময় চান। কিছুক্ষণ পর শমসের মবিন চৌধুরী বাসার ভেতর থেকে বেরিয়ে এলে ডিবি পুলিশ সাদা রঙের একটি মাইক্রোবাসে তাকে তুলে নিয়ে মিন্টো রোডের দিকে যায়।

তবে শমসের মবিন চৌধুরীকে গ্রেফতারের বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে সংবাদ মাধ্যামকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গুলশান বিভাগের উপ-কমিশনার লুৎফুল কবির। ডিবি পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, সুনির্দিষ্ট কিছু অভিযোগের ভিত্তিতে শমসের মবিন চৌধুরীকে আটক করা হয়েছে। তাকে ডিবি হেফাজতে রাখা হয়েছে। আজ শুক্রবার তাকে আদালতে পাঠানো হবে। জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির কূটনৈতিক বিষয় তদারকি করতেন শমসের মবিন চৌধুরী।
বৃহস্পতিবার মার্কিন কংগ্রেসের পররাষ্ট্রবিষয়ক কমিটি বাংলাদেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে গভীর উদ্বেগ জানিয়ে একটি বিবৃতি দেয়। ধারণা করা হচ্ছে, ওই বিবৃতির নেপথ্যে শমসের মবিন চৌধুরীর হাত রয়েছে। এ কারণে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ২০১৩ সালের ৩০ ডিসেম্বর বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয় থেকে শমসের মবিন চৌধুরীকে আটক করেছিল ডিবি পুলিশ। আটকের ৫ ঘণ্টা পর তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছিল। বিএনপির ওই প্রবীণ নেতার বাড়ি সিলেটে। এদিকে রাতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, বিএনপি নেতা আবদুল আউয়াল মিন্টু, রুহুল কবির রিজভী, হাবীব উন নবী খান সোহেলসহ আরও বেশ কয়েজন নেতার খোঁজে সাঁড়াশি অভিযানে নেমেছে পুলিশ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।