হাসপাতাল ছেড়ে কটেজে সালাহ উদ্দিন

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদ হাসপাতাল ছেড়ে শিলংয়ের একটি কটেজে উঠেছেন।  সালাহ উদ্দিনের স্ত্রী হাসিনা আহমেদ এই তথ্য জানিয়েছেন । এর আগে তিনি শিলংয়েরই নেগ্রিমস হাসপাতালে (নর্থ ইস্টার্ন ইন্দিরা গান্ধী রিজিওনাল ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্সেস) ছিলেন।

হাসিনা আহমেদ আরো জানান, নেগ্রিমস হাসপাতালের চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, সালাহ উদ্দিন এখন হাসপাতাল ছেড়ে বাসায় থাকতে পারেন। এরপরই কটেজে নেওয়া হয়েছে।

তবে চিকিৎসকের পরামর্শ হচ্ছে, পরবর্তী অবস্থা পর্যবেক্ষণের জন্য ১৪ দিন পর যেন হাসপাতালে নেওয়া হয়। সালাহ উদ্দিনের শারীরিক অবস্থা এখন কিছুটা উন্নতির দিকে বলে তার স্ত্রী জানান।

৩ জুন সালাহ উদ্দিনের বিরুদ্ধে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে অভিযোগপত্র দেয় স্থানীয় পুলিশ। ২৭ মে আদালতে হাজির করা হলে সালাহ উদ্দিনকে আইনি হেফাজতে (কারাগারে) নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। তবে অসুস্থ হওয়ায় তাকে ওই দিন রাতেই নেগ্রিমসে পাঠানো হয়।

শিলং না ছাড়ার শর্তে ৫ জুন সালাহ উদ্দিন আহমেদকে জামিন দেন আদালত। আরো শর্ত ছিল তাকে প্রতি সপ্তাহে একবার আদালতে হাজিরা দিতে হবে।

প্রায় দুই মাস নিখোঁজ থাকার পর গত ১১ মে ভারতের মেঘালয় রাজ্যের রাজধানী শিলংয়ের গলফ লিং এলাকায় পাওয়া যায় এই বিএনপি নেতাকে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।