যুক্তরাজ্য ছয়দিনের সফরে প্রধানমন্ত্রীর ঢাকা ত্যাগ

 প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছয় দিনের সফরে যুক্তরাজ্যের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। শুক্রবার সকাল ১০টায় ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বাংলাদেশ বিমানের একটি বিশেষ ফ্লাইট লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়ে।

ভারতের সঙ্গে স্থলসীমা চুক্তির বাস্তবায়নসহ বিভিন্ন অর্জনের জন্য আগামী ১৪ জুন লন্ডনে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ প্রধানমন্ত্রীকে সংবর্ধনা দেবেন বলে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব এ কে এম শামীম চৌধুরী জানিয়েছেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, জাতীয় সংসদের প্রধান হুইপ আ স ম ফিরোজ, তিন বাহিনীর প্রধান, পুলিশ মহা পরিদর্শক ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান।

আগামী বুধবার লন্ডন থেকে দেশের উদ্দেশে রওনা হবেন প্রধানমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার তিনি দেশে পৌঁছাবেন।

প্রধানমন্ত্রীর ভাগনি টিউলিপ সিদ্দিক যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্ট সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর এটাই শেখ হাসিনার প্রথম লন্ডন সফর।

টিউলিপের বড় ভাই রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক ও তার পরিবারের সদস্যরাও এই সফরে শেখ হাসিনার সঙ্গে আছে।

প্রতিরোধের ঘোষণা বিএনপির

শেখ হাসিনার এ সফর প্রতিরোধের ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাজ্য বিএনপি। ‘যেখানে শেখ হাসিনা, সেখানেই প্রতিরোধ’ কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছে দলটি।

হাসিনার সফরকে কেন্দ্র করে ইউরোপ এবং স্ক্যান্ডিনেভিয়ার দেশসমূহ থেকে বিএনপির নেতাকর্মীরা লন্ডনে জড়ো হতে শুরু করেছেন বলে জানা গেছে।

তারা হিথ্রো বিমানবন্দরে শেখ হাসিনা আসার পর রাস্তায় কালো কাপড় ও হাতে কালো পতাকা নিয়ে বিক্ষোভ করবেন।

কর্মসূচি সফল করতে যুক্তরাজ্য বিএনপি কয়েক দিনে তিনটি প্রস্তুতি সভা করেছে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাজ্য শাখা বিএনপির সভাপতি এম এ মালেক। বুধবার সর্বশেষ সভা হয়।

মালেক জানান, হিথ্রো বিমানবন্দর থেকে শুরু করে লন্ডনে শেখ হাসিনার প্রতিটি অনুষ্ঠানে বিএনপির পক্ষ থেকে কালো পতাকা প্রদর্শন ও তার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করা হবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।