চিকিৎসার জন্য মঙ্গলবার লন্ডন যাচ্ছেন খালেদা জিয়া

চোখের চিকিৎসার জন্য মঙ্গলবার রাতে লন্ডনের উদ্দেশে রওনা হবেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। দীর্ঘদিন পর বড় ছেলে তারেক রহমান, পুত্রবধূ জুবাইদা রহমান ও নাতনি জায়মা রহমানের সঙ্গে পরিবারিক আবহে ঈদুল আজহা উদযাপন করবেন। রোববার রাতে বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের সিনিয়র নেতাদের বৈঠক শেষে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।

 

নজরুল ইসলাম খান বলেন, “চোখের চিকিৎসার জন্য মঙ্গলবার রাতে লন্ডনের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়বেন খালেদা জিয়া। এজন্য দলের সিনিয়র নেতাদের ডেকেছিলেন তিনি।” “বৈঠকে সাংগঠনিক বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। আমরা দলের পুনর্গঠনের জন্য জেলাগুলোতে চিঠি পাঠিয়েছিলাম। কমিটিগুলোর পুনর্গঠন কাজ যাতে দ্রুত সম্পন্ন হয় সেজন্য বিএনপি চেয়ারপারসন পরামর্শ দিয়েছেন। এছাড়া সর্বোচ্চ শক্তি দিয়ে যাতে পুনর্গঠন কাজ করতে দলের নেতাদের তাগিদ দিয়েছেন তিনি।”

 

খালেদা জিয়া ঈদুল আজহা কোথায় কাটাবেন সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে নজরুল ইসলাম খান বলেন, “ঈদ সাধারণ সবাই পারিবারিক আবহে কাটায়। লন্ডনে বিএনপি চেয়ারপারসনের বড় ছেলে তারেক রহমান, পুত্রবধূ ও নাতনি রয়েছেন। সম্ভবত পরিবারের সঙ্গেই ঈদ কাটাবেন তিনি। এরপর দ্রুতই তিনি দেশে ফিরবেন।” বিএনপি চেয়ারপারসনের লন্ডন সফর যাতে নিরাপদ হয় সেজন্য দেশবাসীর কাছে দলের পক্ষ থেকে দোয়া চেয়েছেন তিনি।

 

এর আগে দলের সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে প্রায় দেড় ঘণ্টা বৈঠকে করেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। বৈঠকে দলের স্থায়ী কমিটি সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, লে. জে. (অব.) মাহবুবুর রহমান, ব্রি. জে. (অব.) আসম হান্নান শাহ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, সারোয়ারী রহমান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) আলতাফ হোসেন চৌধুরী, প্রফেসর মাহবুব উল্লাহ, সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহ, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ইনাম আহমেদ চৌধুরী, মীর নাছিরউদ্দিন, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, যুগ্ম মহাসচিব মোহাম্মদ শাহজাহান,  ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন, যুবদল সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, মহিলা দলের সভাপতি নূরে আরা সাফা, সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।