শহীদের সংখ্যা নিয়ে ‘আপত্তিকর’ বক্তব্য দেওয়ায় খালেদার বিরুদ্ধে মানহানি মামলা

মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা ও বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে ‘আপত্তিকর’ বক্তব্য দেওয়ায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ‘মানহানি’ মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে ঢাকা মহানগর হাকিম আমিনুল হকের আদালতে জননেত্রী পরিষদের সভাপতি এবি সিদ্দিকি এ মামলা করেন।

 

একই ধরনের বক্তব্য দেওয়ায় দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কেও মামলার আসামির তালিকায় রাখা হয়েছে। এ বিষয়ে বেলা ১১টায় শুনানি হবে বলে জানিয়েছেন বাদীর আইনজীবী অ্যাডভোকেট আবুল কালাম আজাদ।

 

মামলায় বাদীর অভিযোগ থেকে জানা গেছে, গত ২১ ডিসেম্বর শাহবাগে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত আলোচনা সভায় জনগণের মাঝে বিভ্রান্তি সৃষ্টির লক্ষ্যে সুকৌশলে এবং ষড়যন্ত্রমূলকভাবে খালেদা জিয়া বলেন, ‘তিনি (বঙ্গবন্ধু) বাংলাদেশের স্বাধীনতা চাননি, তিনি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হতে চেয়েছিলেন, জিয়াউর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা না দিলে মুক্তিযুদ্ধ হত না।’

 

তিনি ‍মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লাখ শহীদদের নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টির বিষয়ে বলেন, ‘আজ বলা হয় এত লাখ শহীদ হয়েছে, এটা নিয়েও অনেক বিতর্ক আছে।’

 

খালেদা জিয়ার এই বক্তব্য পরদিন দেশের সব জাতীয় দৈনিকে ফলাও করে প্রচার করা হয়। এটি দেখে বাদী অত্যন্ত ব্যথিত ও মর্মাহত হয়েছেন বলে মামলায় উল্লেখ করেছেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।